Kunal was admitted to hospital ib tripura

আগরতলার NCC থানায় হাজিরা দিতে গিয়ে অসুস্থ কুণাল, ভর্তি হাসপাতালে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

ত্রিপুরায় আন্দোলনরত তৃণমূলকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল। তেমনই একটি মামলায় থানায় হাজিরা দিতে বলা হয়েছিল তৃণমূলের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষকে। কিন্তু হাজিরা দিতে গিয়ে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন কুণাল। মঙ্গলবার সকালে আগরতলা নর্থ থানায় হাজিরা দিতে যান তিনি।

হাজিরা-পর্ব শেষ করে বেরোনোর ঠিক আগেই মাথা ঘুরে যায় তাঁর। থানায় উপস্থিত তৃণমূল কর্মী ও পুলিশ আধিকারিকরাই বিষয়টা সামাল দেন। কুণালকে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে যাওয়া হয় কাছের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানেই প্রাথমিক চিকিৎসার হয় তাঁর।

সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে কুণাল ঘোষের (Kunal Ghosh) বিরুদ্ধে ত্রিপুরা পুলিসের তরফে মূলত একটি স্বতঃপ্রণোদিত মামলা করা হয়। ওই মামলায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee), কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)-সহ ৬ জনের নাম নথিভুক্ত করা হয়। তলবের ১০ দিনের মধ্যে কুণাল ঘোষকে (Kunal Ghosh) হাজিরা দিতে বলা হয়৷ তখনই কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh) জানিয়েছিলেন ৩ দিনের মধ্যে হাজিরা দেবেন৷ রবিবার রাতে খোয়াই থানার IO-কে ফোন করেন তৃণমূল নেতা৷ মঙ্গলবার হাজিরা দেওয়ার কথা জানান তিনি৷

এরপর পুলিসের তরফে কুণাল ঘোষকে খোয়াই থানা নয়, আগরতলায় আসতে বলা হয়। সেমতো মঙ্গলবার সকালে সেখানে যান কুণাল ঘোষ। জানা গিয়েছে, ঘণ্টাখানেক জিজ্ঞাসাবাদ চললে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, কুণালের অবস্থা এই মুহূর্তে স্থিতিশীল। তবে মঙ্গলবার তাঁকে হাসপাতালেই থাকতে হবে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, কুণালের রক্তচাপ অস্বাভাবিক কমে গিয়েছে। আর রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়েছে অনেকটাই। তাই আচমকাই এমন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূলের সভাপতি আশিসলাল সিংহ বলেন, ‘‘কুণালবাবু অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি আমরা কলকাতার নেতৃত্বকে জানিয়েছি। আপাতত তিনি ভালই আছেন।’’হাসপাতাল থেকেই টুইট করেছেন কুণাল। আক্রমণ করেছেন বিজেপির আইটি সেলকে। তিনি লিখেছেন, ‘ওদের অসভ্য আইটি সেল জেনে রাখুক, সকাল থেকেই আমি অসুস্থ। তারপরেও থানায় গিয়েছি। কাজ সেরেছি। আইও নোটিসের সার্কুলারে লিখে দেন আমি পুরো সহযোগিতা করেছি। তারপর অসুস্থ হই। সুগার বেশি। রক্তচাপ কম।’ কুণাল আরও লেখেন, ‘পুলিশের জেরায় অসুস্থ হওয়ার জিনিস আমি নই। যারা গ্রেফতারির ভয়ে ওদিকে যায়, তাদের আবার কথা।’

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest