Major lapse in PM Modi's security in Bathinda; MHA blames Punjab government

পঞ্জাবের রাস্তায় প্রায় ২০ মিনিট আটকে রইল মোদীর কনভয়, কংগ্রেস সরকারের রিপোর্ট তলব কেন্দ্রের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

পঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর যাত্রাপথে অবরোধ করছিলেন কয়েকজন বিক্ষোভকারী। তার জেরে নির্দিষ্ট গন্তব্যস্থলে না গিয়েই মোদীকে ভাতিন্দা বিমানবন্দরে ফিরে আসতে হয়েছে। এমনই দাবি করল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। যা প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বড়সড় গলদ বলে অভিযোগ করা হয়েছে। সেই ঘটনায় পঞ্জাব সরকারের রিপোর্ট তলব করেছে কেন্দ্র।

বুধবার প্রধানমন্ত্রী ভাতিণ্ডায় গিয়েছেন হুসেইনিওয়ালার ন্যাশনাল ওয়্যার মেমোরিয়াল পরিদর্শনে। প্রথমে ঠিক ছিল তিনি ভাতিণ্ডা বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে ওয়্যার মেমোরিয়ালে যাবেন। কিন্তু বৃষ্টির জন্য কপ্টার ওড়া সম্ভব হয়নি। তাই তিনি প্রায় দু’ঘন্টার রাস্তা সড়কপথেই যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। সেই মতো নিরাপত্তার বন্দোবস্তও করা হয় বলে দাবি করেছেন পাঞ্জাবের ডিজিপি।

নিরাপত্তা খতিয়ে দেখার পরই সড়কপথেই মোদীর সফরের অনুমতি দেয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক (Home Ministry)। কিন্তু ন্যাশনাল ওয়্যার মেমোরিয়াল থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে হঠাৎ দেখা যায় একটি কৃষক সংগঠনের সদস্যরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন এবং রাস্তা বন্ধ। যার ফলে আটকে যায় প্রধানমন্ত্রীর কনভয়। প্রায় মিনিট ২০ অপেক্ষা করার পর ভাতিণ্ডা বিমানবন্দরে ফিরে যান মোদী। তাঁর সব অনুষ্ঠান বাতিল করতে হয়। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, ওই কৃষক সংগঠনের সদস্যরা মোদীর বিরুদ্ধেই বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নিরাপত্তায় বড়সড় খামতি দেখা গিয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে রাজ্য স্বরাষ্ট্র দপ্তরের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রের দাবি, অনেক আগে থেকে প্রধানমন্ত্রীর সফরসূচি সম্পর্কে জানানো সত্ত্বেও, পাঞ্জাবের কংগ্রেস (Congress)  সরকার নিরাপত্তার উপযুক্ত ব্যবস্থা করেনি।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest