Ravi Kishan Is My Father, I Want Him To Accept Me: Lucknow Girl Claims At Press Conference, Mom Shares Proof

Ravi Kishan: ‘রবি কিষেণ আমার বাবা’, সাংবাদিক সম্মেলনে দাবি কিশোরীর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

হাতে গোনা দিন বাকি লোকসভা ভোটের। তার আগেই বিপাকে পড়লেন বিজেপি তারকা সাংসদ রবি কিষাণ। অপর্ণা ঠাকুর নামে এক মহিলা তাঁর বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুললেন। সোমবার লখনউতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ওই মহিলা নিজেকে রবি কিষাণের স্ত্রী বলে দাবি করেন। শুধু তাই নয়, তিনি এ-ও দাবি করেন তাঁদের এক কন্যা সন্তান আছে। যাকে সামাজিকভাবে রবি কিষাণকে গ্রহণ করতেই হবে।

ভোজপুরী সুপারস্টার রবি কিষেণ। বলিউডেও তাঁর বেশ কদর রয়েছে। রিয়ালিটি শো ‘বিগ বস’-এর প্রতিযোগী হওয়ার পাশাপাশি একাধিক হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। সলমন খান, অক্ষয় কুমার, জন আব্রাহামদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন স্ক্রিন। উত্তরপ্রদেশের গোরখপুর কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়েছিলেন রবি। তাতে জিতেই হয়েছেন সাংসদ (BJP MP)। ১৯৯৩ সালে প্রীতি শুক্লাকে বিয়ে করেছিলেন রবি। চার সন্তান রয়েছে তাঁদের। তিন মেয়ে ও এক ছেলে।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, অপর্ণা ঠাকুর নামের এক মহিলা দাবি করেছেন রবি কিষেণ তাঁর সন্তানের বাবা।  ১৯৯৬ সালে মুম্বইয়ের মালাডে পরিবার এবং বন্ধুদের সামনে রবি কিষাণের সঙ্গে সাত পাকে বাধা পড়েন। এমনকি তাঁদের একটি মেয়েও আছে। প্রেস কনফারেন্সে ওই মহিলা মেয়েকে নিয়েই হাজির হয়েছিলেন। সবার সামনে দাবি করেন যে অভিনেতা তাঁদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করেন। তবে প্রকাশ্যে এবং সামাজিকভাবে তিনি এখনও তাঁদের মেয়েকে স্বীকার করেননি। অপর্ণা এ-ও বলেন যে তিনি চান তাঁদের মেয়েকে সমাজের সামনে স্বীকৃতি দিক বিজেপি সাংসদ। যেটা তাঁর যথাযথভাবে প্রাপ্য।

গত এক বছর ধরে মেয়ে-স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ ছিন্ন করেছেন তিনি, তাই বাধ্য হয়েই প্রকাশ্যে এসে স্বীকৃতির দাবি জানাচ্ছেন তিনি। এমনকি তিনি তাঁর মেয়ের অধিকারের জন্য আবেদন করেছিলেন, এই বলে যে রবি কিষাণ যদি তার মেয়ের অধিকার স্বীকার না করেন তবে তিনি আদালতে ন্যায়বিচার চাইবেন। মহিলা জানান, তিনি কোনওদিন রবি কিষেণের ক্ষতি চাননি তাই পুলিশের কাছে যাননি।

রবি কিষাণের কথিত মেয়ে প্রেস কনফারেন্সে বলেন, ‘১৫ বছর বয়সে আমি জানতে পেরেছিলাম রবি কিষাণ আমার বাবা। তার আগে আমি তাঁকে কাকা বলে ডাকতাম। তিনি আমার জন্মদিনে আমাদের বাড়িতে আসতেন। আমি দেখা করেছি। আমি চাই তিনি আমাকে মেয়ে হিসাবে মেনে নিক। নাহলে আমরা আদালতে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

অপর্ণার দাবি, তাঁর মেয়েকে যেন ভোজপুরী সুপারস্টার দত্তক নিয়ে নেন এবং সে যেন সমস্ত অধিকার পায়। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কাছেও বিচারের আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest