কন্যাসন্তান জন্মানোর ফল,ভাই আকিশিনোকে সিংহাসন ছা়ড়লেন জাপানের সম্রাট নারুহিতো

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

পরিবারের মহিলা সদস্যরা সম্রাটের আসনে বসতে পারবেন না। এদিকে বর্তমান সম্রাট নারুহিতোর কোনও ছেলে হয়নি। তাই সিংহাসনে বসার একবছরের মধ্যেই ভাই আকিশিনোকে সেই জায়গা ছেড়ে দিলেন তিনি। সম্প্রতি জাপানের রাজধানী টোকিওতে অবস্থিত রাজ পরিবারের বাসস্থান ইমপিরেয়াল প্যালেসে একটি আয়োজিত অনুষ্ঠানে আকিশিনো (Akishino) -কে জাপানের পরবর্তী সম্রাট হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

গত বছর শারীরিক অসুস্থতার কারণে সিংহাসন থেকে পদত্যাগ করে জাপানের তৎকালীন সম্রাট আকিহিতো। জাপানের ২০০ বছরের ইতিহাসে তাঁর আগে এভাবে কেউ সিংহাসন ছাড়েননি। তারপরই আকিহিতোর জায়গায় সিংহাসনে বসেন নারুহিতো (Naruhito)।

আরও পড়ুন : মাদককাণ্ডে এবার অর্জুন রামপালের বাড়ি তল্লাশি, অভিনেতাকে সমন পাঠাল NCB

তখন থেকেই তিনি কতদিন সিংহাসনে থাকবেন তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। কারণ জাপানের রাজ পরিবারের নিয়ম অনুযায়ী, কোনও মহিলা সদস্যকে সম্রাটের আসনে বসানো হয় না। ফলে নারুহিতোর পরে তাঁর কন্যাসন্তানের সিংহাসনে বসার কোনও সুযোগ ছিল না। অন্যদিকে ৬০ বছরের নারুহিতোর থেকে ৬ বছরের ছোট আকিশিনোর পুত্রসন্তান হয়েছিল। তাই আকিশিনোর সম্রাটের আসনে বসা সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করা হচ্ছিল।

রবিবার জাপানের রাজ পরিবারের তরফে জানানো হয়, এবছরের প্রথমদিকেই ভাই আকিশিনোকে ক্ষমতা হস্তান্তর করে দেওয়ার পরিকল্পনা ছিল নারুহিতোর। এর জন্য গত এপ্রিল মাসে প্রথা মেনে ‘রিক্কোশি নো রেই’ নামে উত্তরাধিকার ঘোষণার অনুষ্ঠানটি করার প্রস্তুতিও নেওয়া হচ্ছিল রাজ পরিবারের তরফে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে তা স্থগিত করে দেওয়া হয়। বর্তমানে জাপানে সংক্রমণের পরিমাণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসার ফলে প্রধানমন্ত্রী ইওশিহিদে সুগার উপস্থিতিতে ইমপেরিয়াল প্যালেসে ওই অনুষ্ঠানটি করা হয়। সেখানে রাজ পরিবারের প্রথা মেনে আকিশিনোর হাতে ঐতিহ্যবাহী তরোয়াল তুলে দিয়ে তাঁকে সম্রাট হিসেবে ঘোষণা করেন নারুহিতো।

আরও পড়ুন : জানেন কী বাইডেনের পূর্বপুরুষরাও ভারতেই ছিলেন! সামনে এল তথ্য

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest