একঘেয়েমি কাটাতে দেদার যৌনতা! কোয়ারেন্টাইনেই লাফিয়ে বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

The News Nest: অস্ট্রেলিয়ায় হঠাৎ করেই বাড়তে শুরু করেছে করোনার সংক্রমণ। নতুন করে করোনায় সংক্রামিত হয়েছেন সেখানকার অনেক বাসিন্দাই। কারণ হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার তরফে দুটি কারণ তুলে ধরা হয়েছে। এক, বহু মানুষ বাইরের দেশ থেকে অস্ট্রেলিয়ায় ফিরেছেন। তাঁদের সকলেই বাধ্যতামূলক ভাবে বিভিন্ন হোটেলে কোয়ারানটিনে রয়েছেন। কিন্তু তাঁরা সেই কোয়ারানটিনের যথাযথ নিয়ম মানছেন না। সেই সঙ্গে বেড়েই চলেছে যৌনসংসর্গ। সম্প্রতি সমীক্ষায় দেখা গেছে অস্ট্রেলিয়ায় বেশির ভাগ মানুষ লকডাউনে যৌনতায় মজেছেন।

সম্প্রতি এরকমই একটি রিপোর্ট প্রকাশ্যে এসেছে। ওই রিপোর্টে দেখা গেছে, গত মে মাসে হটাৎ করে অস্ট্রেলিয়ার ওই শহরে বেড়ে গেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তদন্ত করে তার কারণ খতিয়ে দেখা গেছে, কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য যে হোটেলগুলি নেওয়া হয়েছিল, সেগুলিতে অতিথিদের থাকার ক্ষেত্রে হোটেল কর্তৃপক্ষ কোয়ারেন্টাইনের কোনও গাইডলাইন মেনে চলেনি। পাশাপাশি অনেকেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম কানুনও মানেননি।

আরও পড়ুন: মানুষের আকারের বাদুড়! ছবি পোস্ট হতেই ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

জানা গেছে মেলবোর্নের একটি হোটেলে একদিনেই প্রায় ৩১ জন করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। এই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই কয়েকটি হোটেলকে চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আক্রান্তদের মধ্যে অনেকেই স্বীকার করেছেন, কোয়ারেন্টাইনের একঘেয়েমি কাটাতে তারা অনেকেই যৌনতাকে বেছে নিয়েছিলেন। এমনকি কয়েকটি হোটেলের কর্মীরা একাজে তাদের সাহায্যও করেছিল।

মেলবোর্নে নতুন করে আবার লকডাউন শুরু করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত সেখানে ৭৩০ জন করোনা আক্রান্ত। এদের মধ্যে বেশ কিছুজিন সেরে উঠলেও অ্যাকটিভ কেস ৩৭০ টি। আগামী দুসপ্তাহের জন্য বাইরের দেশ থেকে কোনও অতিথি অস্ট্রেলিয়ায় ঢুকতে পারবেন না। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে বসবাসকারী কেউ মেলবোর্নে আসতে চাইলে অনুমতি লাগবে। 

আরও পড়ুন: মায়ানমারের খনিতে ধস, মৃত কমপক্ষে ১২০ জন শ্রমিক,বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest