আজ ফোকাস-এ

ফেলে দেওয়া কন্ডোম ধুয়ে, শুকিয়ে ফের বিক্রি! ধৃত মহিলা, বাজেয়াপ্ত ৩৬০ কেজি কন্ডোম

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কন্ডোম ব্যবহার করে ফেলে দেওয়ারই নিয়ম। একই কন্ডোম দ্বিতীয় বার ব্যবহার করা যে কোনও সময়েই বিপজ্জনক ও অপরিচ্ছন্নতার নিদর্শন। কিন্তু এই ব্যবহার করা কন্ডোম নিয়েই জঘন্য এক ব্যবসা চলছে ভিয়েতনামে!

জানা গেছে, ব্যবহার করে ফেলে দেওয়া কন্ডোম জোগাড় করে, সেগুলি ধুয়ে, শুকিয়ে, ফের প্যাকেটে ভরে, রীতিমতো নতুনের মতো করে বিক্রি করা হচ্ছে! রয়টার্স জানিয়েছে, ভিয়েতনাম পুলিশ সূত্রে খবর মিলেছে, সে দেশের দক্ষিণ বিন দুয়ং প্রদেশের একটি গুদামে হানা দিয়ে প্রচুর পরিমাণ এরকম কন্ডোমের খোঁজ মিলেছে।

কন্ডোমের সংখ্যা ও পরিমাণ দেখে, ব্যবসার আয়তন আন্দাজ করে কার্যত চোখ কপালে উঠেছে পুলিশের। পুলিশ জানিয়েছে, বড় বড় কয়েক ডজন ব্যাগে ভর্তি শুধুই কন্ডোম। সে সবই ব্যবহার করার পরে ধুয়ে শুকিয়ে প্যাকেটবন্দি করা। মোট ৩৬০ কেজি কন্ডোম বাজেয়াপ্ত হয়েছে, সংখ্যার হিসেবে প্রায় সাড়ে তিন লক্ষটি!

আরও পড়ুন: জানেন কী পর্ন দেখার সময়ে কী কী অদ্ভুত জিনিস ঘটে আপনার শরীরে?

এই চরম বিপজ্জনক ও জঘন্য জালিয়াতিতে এক মহিলাকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ। রয়টার্স জানিয়েছে, ধৃত মহিলা জেরার মুখে পুলিশের কাছে জানিয়েছেন, বিভিন্ন আবর্জনার স্তূপ থেকে কন্ডোম খুঁজে খুঁজে জড়ো করা হয়। তার পরে সেগুলি গরম জলে ধুয়ে, শুকনো করে, নকল পেনিসের মধ্যে পরিয়ে আকার ঠিক করে, ফের নতুনের মতো করে তোলা হয়। সেগুলিই বিক্রি হয়।

ওই মহিলা এ-ও স্বীকার করেছেন, এই কাজটি করার জন্য, এক কেজি কন্ডোম পিছু তিনি .১৭ মার্কিন ডলার করে পারিশ্রমিক পান বলেও জানিয়েছেন। তবে এভাবে কত ব্যবহৃত কন্ডোম ইতিমধ্যেই তৈরি করা হয়েছে, কতই বা বিক্রি করা হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি।

ওই গুদামের মালিক কে, এই ব্যবসাটিই বা কাদের—তা নিয়ে এখনও অন্ধকারে ভিয়েতনামের পুলিশ। শুধু তাই নয়, এই কন্ডোমের ব্যবসা মূলত কোন এলাকায় চলে, তাও এখনও বোঝা যায়নি। ভিয়েতনামের বাইরেও এই ব্যবসার জাল ছড়িয়ে থাকতে পারে বলে আন্দাজ করছে পুলিশ। কোনও আন্তর্জাতিক চক্রের যোগ রয়েছে কিনা, খতিয়ে দেখা হচ্ছে তাও।

আরও পড়ুন:  বিয়ে করলেই মিলবে পুরস্কার! নবদম্পতি হাতে হাতে পাবেন ৪ লক্ষ টাকা

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

সম্পর্কিত পোস্ট