কেরলে মৃত ৬৯ বছরের করোনা আক্রান্ত রোগী, ভারতে সংখ্যা বেড়ে ২০

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কোচি: ক্রমশই কঠিন হয়ে পড়ছে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই। আসন্ন সময়টাই সবচেয়ে কঠিন বলে সতর্ক করছেন চিকিৎসক, বিশেষজ্ঞরা।ওই সময়ের মধ্যে ভারত পা রাখতে করোনা সংক্রমণের তৃতীয় পর্যায়ে বা স্টেজ-থ্রি’তে। এই পর্যায়ে শুরু হয়ে যাবে গোষ্ঠী সংক্রমণ। আর সেটাই সবচেয়ে বিপজ্জনক। আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা হু হু করে বৃদ্ধির আশঙ্কা। এখনই দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৯০০ছাড়িয়েছে। খুব কম সময়ের মধ্যে এই হার বৃদ্ধি। নোভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের (তিন বিদেশি-সহ সংখ্যাটা ২৩)। মহারাষ্ট্রে মৃত্যুর হার সর্বোচ্চ। বিশ্বজুড়ে চার লক্ষেরও বেশি মানুষের শরীরে থাবা বসিয়েছে COVID-19. এদিকে, লকডাউন উপেক্ষা করে সপ্তাহান্তের সকাল থেকেই বিভিন্ন বাজার খোলা। ন্যূনতম স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে তাতে ভিড় জমিয়েছেন আমজনতা। যা সংক্রমণের আশঙ্কা আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে।

আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের ভূমিকায় খুশি নমো, আর্থিক প্যাকেজে মোদীকে ধন্যবাদ মমতার

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে কেরলে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। শনিবার সকালে কেরলে ৬৯ বছরের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২০। শনিবার সকালে কেরলের চুল্লিক্কালের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। জানা গিয়েছে, কয়েক দিন আগেই দুবাই থেকে ফিরেছিলেন ওই বৃদ্ধ। তারপরেই গত ২২ মার্চ তাঁর শরীরে কোভিড ১৯ পজিটিভ ধরা পড়ে। কালামাসসেরি মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি ছিলেন তিনি। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। এই প্রথম কেরলে করোনায় কারও মৃত্যু হল।

এর আগে মহারাষ্ট্রে ৪ জন, কর্নাটকে ৩ জন, গুজরাতে ৩ জন, মধ্যপ্রদেশে ২ জন এবং দিল্লি, পঞ্জাব, তামিলনাড়ু, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, হিমাচল প্রদেশ ও জম্মু-কাশ্মীরে একজন করে করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। সেই তালিকায় এবার যোগ হল কেরলও।

আরও পড়ুন: Corona Update: দেশে আক্রান্ত ৮৭৩, গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ১৪৯, মৃত বেড়ে ১৯

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest