7 arrested in allegation of bank fraud in kolkata

গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও ৪৫ লক্ষ টাকা, ধৃত ব্যাঙ্ক কর্মী-‌সহ ৭

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কলকাতা পুলিশের জালে ধরা পড়ল সাত জালিয়াত। অন্তত ৪৫ লক্ষ টাকার জালিয়াতিতে অভিযুক্ত প্রত্যেকে। এখনও পর্যন্ত সাড়ে ছ’লক্ষ টাকা উদ্ধার করা গিয়েছে।  একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের সিআইটি রোডের শাখার মাধ্যমে এই জালিয়াতির কারবার রমরমিয়ে চলছিল। রীতিমতো ছক কষে টাকা আত্মসাৎ করত জালিয়াতরা। ব্যাংকে দু’জন অ্যাকাউন্ট খুলেছিল। সেই অ্যাকাউন্টেই সমস্ত টাকা এসে জমা হত। পরে তা তুলে নেওয়া হত।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্তদের মধ্যে একজন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকেরই আউটসোর্স কর্মী। তার সাহায্যেই গোটা বিষয়টি হত।ব্যাঙ্ক আধিকারিকদের আইডি ও পাসওয়ার্ড হাতিয়ে সাধারণ গ্রাহকদের প্রোফাইলে ঢুকতে প্রতারকরা। তারপর গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টের মোবাইল নম্বর ও ই-‌মেল আইডি বদলে দেওয়া হত। এর ফলে লেনদেন সংক্রান্ত কোনও তথ্য গ্রাহকদের কাছে আর যেত না। এরপরই গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে অন্য দুই জাল অ্যাকাউন্টে ফেলা হত। পরে সেই টাকা তুলে নেওয়া হত।

পুলিশ সূত্রে খবর, বেশ কিছুদিন ধরেই এই জালিয়াতি চলছিল। গোটা বিষয়টি এক ব্যাঙ্ক গ্রাহকের নজরে আসতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু করে অ্যান্টি ব্যাঙ্ক ফ্রড শাখার অফিসারেরা। এরপর তদন্তে নেমে প্রথমে চারজন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধৃতদের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তদন্তকারীদের সন্দেহ এই ঘটনায় আরও কয়েকজন জড়িত থাকতে পারে। সেই কারণে দফায় দফায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, মোট ৪৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছে জালিয়াতরা। তার মধ্যে সাড়ে ছ’‌লক্ষ টাকা উদ্ধার করা গিয়েছে। বাকি টাকার খোঁজ চলছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest