শাহকে সমনের প্রতিশোধ নিতেই বাড়িতে সিবিআই, প্রতিক্রিয়া দিলেন অভিষেক

রবিবার বেলা ২টো নাগাদ সিবিআইয়ের ৫ জনের প্রতিনিধিদল অভিষেকের কালীঘাটের বাড়িতে পৌঁছয়।

কয়লাকাণ্ডে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা নারুলা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রবিবার নোটিস দিয়েছে সিবিআই।এ প্রসঙ্গে টুইট করে প্রথম প্রতিক্রিয়া দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

টুইটে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় লিখলেন, “আজ দুপুর দুটোয় সিবিআই আমার স্ত্রীকে নোটিস দিয়েছে। আইন শৃঙ্খলার প্রতি আমার পূর্ণ আস্থা রয়েছে। সিবিআই যদি ভেবে থাকে এ সবে আমরা বিভ্রান্ত হব, ভয় পাব, তাহলে ভুল করছে। আমরা কোনও কিছুতেই অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না।”

টুইটে তিনি সিবিআইয়ের সেই নোটিসের প্রতিলিপিও তুলে ধরেছে। যেখানে রয়েছে, কলকাতা কেস নম্বর আর সি ০১০২০২০A০০২২, ক্রিমিন্যাল প্রসিডিওর ১৯৭৩-এর তদন্ত করতে সিবিআই দল গিয়েছে। নোটিসে আজ বেলা ৩টের সময় রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায় নারুলাকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। এই কেসের বিষয়ে তাঁর কাছ থেকে কিছু প্রশ্নের উত্তর জানতে চাওয়া হবে বলে নোটিসে জানানো হয়েছিল।

আরও পড়ুন: জাকিরের শরীরের তিনটি জায়গায় প্লাস্টিক সার্জারি, মিলল চাঞ্চল্যকর তথ্য

রবিবার বেলা ২টো নাগাদ সিবিআইয়ের ৫ জনের প্রতিনিধিদল অভিষেকের কালীঘাটের বাড়িতে পৌঁছয়। সেখানে অভিষেকের স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নোটিশ দেন তাঁরা। তবে সেই সময় বাড়িতে ছিলেন না অভিষেক বা তাঁর স্ত্রী। সিবিআইয়ের তরফে জানানো হয়, তাঁরা বাড়ি ফিরলে যেন সিবিআইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

সিবিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে, কোথাও হাজিরা দিতে হবে না রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তাঁর সুবিধামতো সময়, তাঁর সুবিধামতো জায়গায় রুজিরাদেবীকে জেরা করবেন সিবিআইয়ের মহিলা আধিকারিকরা। এদিন সিআরপিসির ১৬০ ধারায় সাক্ষী হিসাবে নোটিশ দেওয়া হয়েছে রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

পাশাপাশি ভয় দেখানোর রাজনীতির অভিযোগও তুলেছেন সৌগত রায়, কুণাল ঘোষরা। ভোটের সময় এই নোটিস নিয়ে প্রশ্ন তুলে সেটি আরও আগে দেওয়া উচিত ছিল বলে মন্তব্য সিপিএমের। নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি তুলেছে কংগ্রেস। অন্য দিকে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য়, আগে থেকেই তদন্ত চলছিল। প্রতিহিংসার অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন: কয়লাপাচার কাণ্ডে অভিষেকের স্ত্রীকে নোটিস দিতে বাড়িতে গেল সিবিআই, প্রশ্ন লেনদেন নিয়ে