খাস কলকাতায় বৃদ্ধ বাবাকে পিটিয়ে খুন ছেলের, বাড়ির নিচ থেকে উদ্ধার রক্তাক্ত দেহ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

খাস কলকাতায় ছেলের হাতে খুন হন বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে যাদবপুর থানা এলাকার ১/সি রায়পুর রোড ইস্টে। টাকা না পেয়ে আক্রোশের বশেই বাবাকে খুন করে ছেলে। যাদবপুর কাণ্ডের তদন্তে নেমে প্রাথমিক মোটিভ পুলিসের হাতে।

মৃতের নাম শুভময় বন্দ্যোপাধ্যায় (৬৯)। জানা গিয়েছে, শুভময় অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী। অবসরের পর পেনশনের টাকায় সংসার চালাতেন তিনি। বছর একত্রিশের অর্পণ বাবার টাকাতেই বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেন। আর্থিক অনটনে পড়তে হয় শুভময়কে। নিজের একটি ফ্ল্যাট বিক্রি করে দেন তিনি।

ফ্ল্যাট বিক্রির টাকা বাবার কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়ার জন্য প্রায়শই ঝামেলা করত অর্পণ। শুক্রবারই ঝামেলা হয়। প্রতিবেশীদের দাবি, বাবা- ছেলের এই ঝামেলা নতুন কিছু নয়। মাঝেমধ্যে বাবাকে মারধর করত অর্পণ। শুক্রবার রাতে চিৎকার চেঁচামেচি শুনতে পেয়ে কয়েকজন প্রতিবেশী বাড়িতে ঢোকেন।

আরও পড়ুন: RPL মামলা: রিলায়েন্স ও মুকেশ আম্বানিকে জরিমানা দিতে বলল সেবি

ঘরের মেঝেতে বৃদ্ধকে রক্তাত্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। খবর দেওয়া হয় গড়ফা থানায়। পুলিস গিয়ে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, বচসা চলাকালীন বাবাকে ধাক্কা দেয় অর্পণ। ওপর থেকে নীচে পড়েই মৃত্যু হয় বৃদ্ধের।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে পুলিস জানতে পেরেছে, শুভময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রীও মানসিকভাবে সুস্থ নন। এমনকি অভিযুক্ত ছেলেরও মানসিক ভারসাম্য নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। প্রয়োজনে সাহায্য নেওয়া হতে পারে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের।

আরও পড়ুন: সিসিইউ–তে ভর্তি সৌরভ, বিকেলে অ্যাঞ্জিওগ্রাম, প্রয়োজনে করা হবে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest