প্রথম কাজ কোভিড মোকাবিলা, মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েই জানালেন মমতা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

মে, ২০২১। ঘড়ির কাঁটায় সকাল ১০.৪৫। বঙ্গের রাজনৈতিক ইতিহাসে তৈরি হল এক নয়া অধ্যায়। বিপুল জনসমর্থন নিয়ে তৃতীয়বারের জন্য বাংলা শাসনের দায়িত্ব নিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যয় (Mamata Banerjee)। ‘জননেত্রী’কেই ফের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে পেলেন বাংলার মানুষ। বুধবার রাজভবনে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করালেন রাজ্যপাল। আগামী ৫ বছর মানুষের হয়ে, মানুষের জন্য কাজ করতে অঙ্গীকারবদ্ধ হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কোভিড পরিস্থিতিতে বর্ণাঢ্য নয়, বরং একেবারে অনাড়ম্বরেই হয়ে গেল শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। সর্বসাকুল্যে অতিথি ছিলেন ৫০ জন। ছিলেন না সিপিএম, বিজেপির কোনও প্রতিনিধি।উপস্থিত হয়েছিলেন তৃণমূলের কয়েকজন শীর্ষ নেতারা। ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর, সাংসদ শতাব্দী রায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, দেব-সহ আরও অনেকে। এসেছিলেন কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্যও।

শপথবাক্য পাঠের পরই উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এই জয়ের জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। রাজ্যপাল এবং তাঁর পরিবারকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এছাড়া বাংলার মা-মাটি-মানুষকেও অসংখ্য ধন্যবাদ। তবে এখন আমাদের প্রথম কাজ করোনার মোকাবিলা করা। এখান থেকে নবান্নে গিয়ে বেলা সাড়ে ১২ টায় কোভিড নিয়ে বৈঠক করব। তারপরই সাংবাদিক সম্মেলন করে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করব।” এর পাশাপাশি রাজ্যে শান্তি বজায় রাখার কথাও বলেন। শুধু তাই নয়, অনেককেই করোনা আবহে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানাতে পারেননি, সেকথা জানিয়ে দুঃখপ্রকাশও করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: অতীন ঘোষের-আধা সেনা বচসা, সকাল থেকে উত্তপ্ত কাশিপুর-বেলগাছিয়া

বুধবার রাজ্যপালের কাছে শপথ বাক্য পাঠ করার পরে মমতা বলেন, তাঁর সরকারের প্রথম কাজ রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা। রাজভবন থেকে সরাসরি নবান্নে গিয়ে বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ বৈঠকে বসবেন তিনি। সেখানেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হবে। তার পর দুপুর ৩টের সময় সাংবাদিক বৈঠক করবেন মমতা। বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেই বিষয়ে সবাইকে জানাবেন মুখ্যমন্ত্রী।

এর আগে গত রবিবার নির্বাচনের ফল পরিষ্কার হতেই কালীঘাটে সাংবাদিকদের সামনে মমতা বলেছিলেন, তাঁর প্রথম কাজ হবে করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা করা। শপথ নেওয়ার পরেও সেই একই কথা শোনা গেল তাঁর মুখে।

আরও পড়ুন: কলকাতা পুরসভার দায়িত্বে ফের ফিরহাদ হাকিম

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest