কলকাতার মুকুটে নয়া পালক! বিশ্বের বিজ্ঞান শহরের তালিকার প্রথম ১০০’এ স্থান তিলোত্তমার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বিজ্ঞান শহর (Science City) হিসেবে সেরার তালিকায় স্থান পেল কলকাতা। নেচার ইনডেক্স ব়্যাঙ্কিং অনুযায়ী বিশ্বের সেরা ১০০টি বিজ্ঞান শহরের মধ্যে রয়েছে ভারতের বেঙ্গালুরু এবং কলকাতা। বিশ্বব্যাপী নেচারের ব়্যাঙ্কিং অনুযায়ী শীর্ষে রয়েছে বেইজিন, নিউ ইয়র্ক, বোস্টন, সান ফ্রান্সিস্কো এবং সাংহাই।

বিজ্ঞানচর্চা এবং তার প্রয়োগে কোন শহর কত এগিয়ে, তা নিয়ে প্রতিবারই সমীক্ষা চালায় নেচার ইনডেক্স (Nature Index)।মোট ৫৮ জন নেচার বিশেষজ্ঞের মতে ৮২টি সেরা জার্নালের ফলাফলের ভিত্তিতেই এই ব়্যাঙ্কিং তৈরি হয়। করোনা কালেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ২০২০ সালেও একাধিক রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে চলে তাদের সমীক্ষা। নেওয়া হয় বিশেষজ্ঞদের মতামতও। তার ভিত্তিতেই দেখা যায়, এ বছর অনেককে পিছনে ফেলে বিজ্ঞান শহরের প্রথম ১০০র তালিকায় ঢুকে পড়েছে City of Joy.

আরও পড়ুন: জালে পেল্লাই ভোলা ভেটকি, বিক্রি তিন লাখ টাকায়, রাতারাতি বড়লোক বৃদ্ধা

গত বছর তার স্থান ছিল ১২১, এ বছর ৯৯! এই খবরে খুশির জোয়ার মহানগরবাসীর হৃদয়ে। খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীও। সোমবার উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছেন মমতা। সেখানে বসেই এই সুখবর নিজের টুইটারে শেয়ার করে জানিয়েছেন তিনি। লিখেছেন, ‘তিলোত্তমা, তোমাকে শুভেচ্ছা’

 

অনেকের মতে, নিউ নর্মালে কলকাতাবাসীর দৈনন্দিন জীবন অনেক পালটেছে। বাইরে না বেরনোর ফলে ঘরে বসেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে আগ্রহী হয়েছেন প্রবীণরাও। বন্ধুত্ব হয়েছে প্রযুক্তির সঙ্গে। বিজ্ঞানচর্চা এবং প্রয়োগের পরিসর বেড়েছে। তাই বিশ্বের বিজ্ঞান-শহরের তালিকায় শহর কলকাতার এই উত্থান। ইন্টারনেট সম্পর্কে আনাড়ি মানুষও নিউ নর্মালে তুলনামূলক অনেকটাই টেকস্যাভি। সবমিলিয়ে বিজ্ঞানের এই অবদানে কলকাতা আবারও সেরার তালিকায় স্থান পাওয়া খুশি শহরবাসী।

এর আগে বিচারের নিরিখে ৯৩তে ছিল বেঙ্গালুরুর নাম। তবে এবার খানিকটা পিছিয়ে ৯৭ নম্বরে স্থান পেয়েছে বেঙ্গালুরু।  আপাতত এই তালিকায় মুম্বই রয়েছে ১৩২-এ। দিল্লির-NCR-এর স্থান ১৬৩-তে। উল্লেখ্য, শেষবার ১৬৯-তে পুনের নাম থাকলেও চলতি বছর ২০০-র তালিকায় জায়গা করতে পারেনি পুনে।

আরও পড়ুন: করোনার বিপদ এড়িয়ে কীভাবে দুর্গা পুজোর আনন্দে মাতবেন? গাইডলাইন প্রকাশ রাজ্যের

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest