Kolkata Police preparedness ahead of Independence Day

Kolkata Police: রেড রোড সাজবে দুর্গাপুজো- কন্যাশ্রী ট্যাবলোয়, নিরাপত্তার চাদরে মুড়েছে শহর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

স্বাধীনতা দিবসের আগে পুলিশি নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও আঁটসাঁট করছে কলকাতা পুলিশ। শহরের কোথাও যাতে কোনওরকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় সবরকম ব্যবস্থা নিয়ে রাখছে কলকাতা পুলিশ। এদিকে এই বছর রেড রোডে স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠান দেখার জন্য অনুমতি দেওয়া হয়েছে সাধারণ নাগরিকদের।

করোনার সময়ে অর্থাৎ গত দুই বছর সাধারণ দর্শকদের প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু এই বছর দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান দেখতে যেতে পারবেন সকল আম-নাগরিক। আর তাই আগে থেকে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে লালবাজার। বারোশো পুলিসকর্মী মোতায়েন থাকবে গোটা চত্বরে। থাকবে কুইক রেসপন্স টিম।

কলকাতা বিমানবন্দর চত্বরেও বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আরও আঁটসাঁট করা হয়েছে প্রহরা। পাঁচস্তরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বিমানবন্দরে ঢোকার মুখে চলছে তল্লাশি ও নাকা চেকিং। বিমানবন্দরে ঢোকার আগে স্নিফার ডগ ও মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন: Partha Chatterjee: যদি রাজনীতিতে না আসতাম…’, আক্ষেপেই জেলের প্রথম রাত কাটল পার্থর

রেড রোডে থাকবে ছটি ওয়াচ টাওয়ার। তিন জায়গায় বালির বস্তার বাঙ্কারে থাকবে কমান্ডো বাহিনী। যে বারোশো পুলিস কর্মী মোতায়েন থাকবে গোটা চত্বরে, তাদের পরিচালনার দায়িত্বে থাকবেন ছজন যুগ্ম পুলিশ কমিশনার। সারা শহরে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে মোট তিন হাজার পুলিসকর্মী। রেড রোড চত্বরে থাকবে তিনটি কুইক রেসপন্স টিম। থাকবে নটি টহলদারি ভ্যান। মেট্রো স্টেশনগুলিতেও থাকবে বাড়তি নিরাপত্তা, সাথে মোতায়েন থাকবে অতিরিক্ত বাহিনী।

রেড রোড সংলগ্ন চত্বর মোট ১৪ টি জোনে ভাগ করা হয়েছে। প্রত্যেক জোনের দায়িত্বে থাকবেন একজন করে ডেপুটি কমিশনার এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার। পুরো রেড রোড চত্বর মুড়ে ফেলা হয়েছে সিসিটিভিতে। গোটা শহরে ২৩ টি জায়গায় থাকবে নাকা তল্লাশির ব্যবস্থা।

স্বাধীনতা দিবসে এবার রেড রোড জুড়ে থাকবে দুর্গাপুজোর ট্যাবলো। একদিকে যেমন ঐতিহ্য- সংস্কৃতি তুলে ধরা হবে তেমনই তুলে ধরা হবে কন্যাশ্রী, স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মত আর্থ সামাজিক প্রকল্পগুলি। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন ট্যাবলো সাজানোর এই কাজ শুরু করে দিয়েছে রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর, সমাজকল্যাণ দফতর, উচ্চ শিক্ষা দফতর।

আরও পড়ুন: অনুব্রতর গ্রেফতারিতে সোশ্যালসাইটে ফিরল শঙ্খের সেই কবিতা

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest