বাসে উঠলেই দশ টাকা! প্রতি চার কিমি-তে বাড়বে ভাড়া,জানুন কত করে?

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

রকেট গতিতে বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম। এই পরিস্থিতিতে আবার কোভিডের জেরে বন্ধ বাস পরিষেবা। তাই চরম দুর্ভোগ এবং লোকসানে ভুগছেন বাস পরিবহণ শিল্পের সঙ্গে যুক্ত সবাই। এই আবহে এবার বাস ভাড়া বাড়ানোর জন্যে রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানালেন বাস ও মিনিবাস মালিক সংগঠনগুলি। করোনা মোকাবেলায় রাজ্যজুড়ে চলছে লকডাউন। বন্ধ রয়েছে গণপরিবহণ। বন্ধ বাস মালিকদের আয়। আর্থিকভাবে একেবারেই বিপর্যস্ত বেসরকারি বাস মালিকরা। সঙ্গে দোসর হয়েছে আকাশছোঁয়া জ্বালানির দাম। এই পরিস্থিতিতে ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব মালিকপক্ষের।

আরও পড়ুন : ২০,০০০ বছর আগেই পূর্ব এশিয়ায় তাণ্ডব চালিয়েছিল করোনা মহামারী!

বাস মালিকরা বলছেন, ২০১৮ সালে বহু আন্দোলনের পর ভাড়া বাড়ে মাত্র ১ টাকা। সেই ভাড়াই চলছে আজও। যেখানে জ্বালানি ও অন্যান্য জিনিস-পত্রের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে। সেখানে ভাড়া কেন বাড়বে না, সেই প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। পাশাপাশি তাঁদের দাবি, লকডাউন উঠলে যদি ভাড়া বৃদ্ধি করা না হয়, তাহলে বাস চালানো অসম্ভব। পাশাপাশি একটি আর্থিক প্যাকেজ দিতে হবে। কারণ, বাসগুলিকে আবার সচল করে পথে নামাতে হলে বিপুল খরচ পড়বে।

এই পরিস্থিতিতে রবিবার আলোচনায় বসে বাস মালিক সংগঠগুলি। তাতেই নয়া ভাড়ার হার-এর প্রস্তাব দেয় মালিকপক্ষ। নয়া প্রস্তাব অনুযায়ী, ০ থেকে ৪ কিলোমিটারের জন্য প্রস্তাবিত ভাড়া ১০ টাকা। ৪ থেকে ৮ কিলোমিটারের জন্য প্রস্তাবিত ভাড়া ১৫ টাকা। ৮ থেকে ১২ কিলোমিটারের জন্য প্রস্তাবিত ভাড়া হবে ২০ টাকা। ১২ থেকে ১৬ কিলোমিটার পর্যন্ত প্রস্তাবিত ভাড়া হবে ২৫ টাকা।

মিনিবাসের ক্ষেত্রে ০ থেকে ৩ কিলোমিটারের জন্য নতুন প্রস্তাবিত ভাড়া ১০ টাকা। ৩ থেকে ৬ কিলোমিটারের জন্য প্রস্তাবিত ভাড়া ১৫ টাকা। ৬ থেকে ১০ কিলোমিটার জন্য প্রস্তাবিত ভাড়া ২০ টাকা।

আরও পড়ুন : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হট বেলুন দুর্ঘটনায় নিহত ৫

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest