‘ফান ভিডিয়ো’ বানাতে দ্বিতীয় হুগলি সেতু থেকে ঝাঁপ, তলিয়ে গেলেন যুবক

সেলফি নেওয়ার পর, মোবাইলের ভিডিয়ো ক্যামেরা চালু করে দুই যুবক সেখান থেকে ঝাঁপও দেন গঙ্গায়।

ফান ভিডিয়ো তৈরি করতে গিয়ে গঙ্গায় তলিয়ে গেলেন এক যুবক। সোমবার দ্বিতীয় হুগলি সেতুতে এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ডুবুরি নামায় রিভার পুলিশ। তাতে একজনকে উদ্ধার করা গেলেও আরেকজন নিখোঁজ। দুই যুবকই কলকাতার তিলজলার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। নিখোঁজ যুবকের বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে হেস্টিংস থানার পুলিশ।

৫ বন্ধু মিলে ‘ফান ভিডিয়ো’ তৈরি করার পরিকল্পনা করেন। সেই পরিকল্পনা মাফিক রবিবার বাইকে করে তাঁরা দ্বিতীয় হুগলি সেতুর উপর পৌঁছে যান। সেলফি নেওয়ার পর, মোবাইলের ভিডিয়ো ক্যামেরা চালু করে দুই যুবক সেখান থেকে ঝাঁপও দেন গঙ্গায়। তাঁদের মধ্যে একজন গঙ্গার স্রোতে তলিয়ে যান।

আরও পড়ুন: কৃষক আন্দোলন : মনমোহনের দেখানো পথেই সংস্কার, চাপে পড়ে সংসদে বার্তা মোদীর

পুলিশ সূত্রে খবর, যে দুই তরুণ ঝাঁপ দেন, তাঁরা দু’জন মহম্মদ দাস্তগির আলম এবং মহম্মদ জাকির সর্দার। ডুবুরি নামিয়ে ২৩ বছরের আলমকে উদ্ধার করা হয়েছে। জাকিরের এখনও খোঁজ নেই। হেস্টিংস থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। জাকিরের বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে।

গঙ্গায় যুবকের এমন পরিণতি দেখে, বাকিরা নদীতে আর ঝাঁপ দেননি। প্রত্যেকেই সাঁতার জানতেন বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কি না, তা-ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

ঘটনায় দ্বিতীয় হুগলি সেতুর নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কী করে ৫ যুবক সেতুর রেলিং টপকে সাধারণের জন্য নিষিদ্ধ এলাকায় ঢুকলেন, আর কেনই বা তা কারও নজরে পড়ল না তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ ও HRBC. খতিয়ে দেখা হচ্ছে সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ।

আরও পড়ুন: নেপথ্যে চাপ? কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে বিতর্কের মাঝেই পদত্যাগ টুইটার ইন্ডিয়ার কর্মকর্তার