৭ বছর পর জামিন পেলেন সারদাকাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত দেবযানী মুখোপাধ্যায়

সারদা (Sarada scam) মামলায় জামিন পেলেন অন্যতম অভিযুক্ত দেবযানী মুখোপাধ্যায়। শনিবার কলকাতা হাই কোর্ট তাঁকে এ রাজ্যের সমস্ত মামলা থেকে জামিনের অনুমতি দেয়। তবে অন্যান্য রাজ্যে যে সারদা মামলা রয়েছে, তাতে দেবযানী থাকবেন অন্যতম অভিযুক্ত হিসেবেই। শনিবার এমনই জানিয়েছেন কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta HC) বিশেষ ডিভিশন বেঞ্চ। অসম, ওড়িশায় সারদার বেশ কয়েকটি মামলা চলছে এখনও। আর সে কারণেই জামিন পেলেও তাঁর জেলমুক্তি নিয়ে জটিলতা থাকছে। তবে ৭ বছর পর সারদা টুর অ্যান্ড ট্রাভেলস-সহ একাধিক মামলার খাঁড়া আর রইল না দেবযানীর মাথার উপর।

আরও পড়ুন : ‘আঙ্কেলজি মিটস দাদু’, অরুণ মিশ্রর সঙ্গে রাজ্যপালের বৈঠককে কটাক্ষ মহুয়ার

গত ১৫ জুন আদালতে মামলাটি উঠলে সিবিআই দেবযানীর জামিন পিছনোর জন্য বিচারপতিদের কাছে আবেদন জানায়। কিন্তু সেই আবেদন খারিজ করে দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। একই সঙ্গে সিবিআইয়ের আবেদন নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশও করে আদালত।

দেবযানীর মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই সময় চায়। কিন্তু হাই কোর্ট সময় দিতে চায়নি। শনিবার এই মামলায় বিশেষ বেঞ্চ বসানো হয়েছিল কলকাতা হাই কোর্টে। সেই বেঞ্চেই জামিন মঞ্জুর হয় দেবযানীর। আদালত সূত্রে খবর, ২ লক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে মিলেছে জামিন।তবে এখনই জেল থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না সারদার এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর। কারণ, এ রাজ্যের বিভিন্ন থানায় ১০০ টিরও বেশি মামলা রয়েছে দেবযানীর বিরুদ্ধে। সেসব চার্জশিট জমা পড়েনি এখনও। এছাড়া গুয়াহাটি, ভুবনেশ্বরেও চলছে মামলা। তাই আপাতত জেলেই থাকতে হবে তাঁকে।

আরও পড়ুন : বর্ষায় সর্দি-কাশি সারাবে পেঁয়াজ! জেনে নিন কিভাবে…