এই মুহূর্তে রাজ্যে সবথেকে চর্চিত নাম আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Bandapadhyay)। বাংলার মুখ্যসচিব এবং অবশ্যই প্রশাসনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম আস্থাভাজন। সোমবার মুখ্যসচিব হিসাবে তাঁর মেয়াদ শেষ হচ্ছে। অন্যদিকে এদিনই সকালে দিল্লির নর্থ ব্লকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাঁকে। কী করবেন তিনি, সেদিকে নজর বিভিন্ন মহলের। এরইমধ্যে রবিবার বিকেলে হঠাৎই সস্ত্রীক নবান্নে হাজির হলেন তিনি। বেশ কিছুক্ষণ নিজের দফতরে সময়ও কাটালেন।

আরও পড়ুন : অনাথদের সাহায্য করতে হলে এখনই করুন! মোদী সরকারের ‘মাস্টারস্ট্রোক’ নিয়ে খোঁচা পিকের

শুক্রবারই রাজ্যে এসেছে কেন্দ্রের পত্রবোমা। রাজ্যের মুখ্যসচিবের পদ ছেড়ে দিল্লির নর্থ ব্লকের দফতরে যেতে হবে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে। ৩১ মে রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসাবে তাঁর মেয়াদ ফুরোচ্ছে। এদিনই দিল্লিতে যেতে হবে তাঁকে। সকাল ১০টার মধ্যে কর্মিবর্গ ও প্রশিক্ষণ মন্ত্রকে (ডিওপিটি) যোগ দিতে বলা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

এরপরই তৈরি হয়েছে বিতর্ক। আদৌ আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লিতে যাবেন, নাকি রাজ্যেই থেকে যাবেন তা নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে জল্পনা। নবান্ন সূত্রে খবর, আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার সচিবালয়ে যাবেন। বৈঠকও করবেন। তেমনটা যদি হয়, তা হলে সকাল ১০টার মধ্যে অন্তত তাঁর দিল্লি যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। কিন্তু তিনি যদি দিল্লি না যান, তার পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়েও নানা ধোঁয়াশা থেকে যাচ্ছে।

এই অবস্থায় সোমবার ঠিক কী ঘটতে চলেছে, তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। এই দিন আবার মুখ্যসচিবের অবসরের দিন। বিশেষ পরিস্থিতিতে তাঁর কার্যকালের মেয়াদ আরও তিনমাস বাড়ানো হয়েছে। আর সেই সূত্রেই তাঁকে দিল্লিতে বদলি করা হচ্ছে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের। তবে কি রাজ্যের পাট গুটিয়ে আলাপন দিল্লির কাজে যোগ দেবেন নাকি কেন্দ্রকে জানিয়ে দিতে চলেছেন যে দিল্লির নির্দেশমতো তিনি নর্থ ব্লকে সোমবার রিপোর্ট করবেন না? সবটাই স্পষ্ট হবে সোমবার। তবে নবান্ন সূত্রের খবর, সোমবার পূর্ব নির্ধারিত সরকারি কাজগুলি সামলাবেন মুখ্যসচিব। ‘যশ’ মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রী বৈঠকেও থাকবেন তিনি।

আরও পড়ুন : অন্যান্য অঙ্গ প্রতঙ্গের মতোই পুরুষাঙ্গেরও যত্ন নেওয়া উচিত, জানুন পদ্ধতি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *