Two unknown body found from bajakadamtala ghat

বিসর্জনের মধ্যেই গঙ্গার পাশে জোড়া দেহ উদ্ধার, বাবুঘাট এলাকায় চাঞ্চল্য

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

প্রতিমা নিরঞ্জনের মাঝেই বাজা কদমতলার (Baja Kadamtala Ghat) বাঁধাঘাট থেকে উদ্ধার ২টি দেহ। স্থানীয়দের নজরে পড়ে দেহটি। খুন নাকি আত্মহত্যা, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। নিহতদের নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

গত শুক্রবার সন্ধে থেকে গঙ্গার ঘাটে ঘাটে চলছে প্রতিমা নিরঞ্জন। রবিবার সকালেও তার ব্যতিক্রম নেই। প্রতিমা ভাসান চলছে। তারই মাঝে এদিন সকালে বাজা কদমতলা ঘাটে দু’টি ভাসতে দেখা যায়। দু’টিই পুরুষের দেহ। খবর পাওয়ামাত্রই উত্তর বন্দর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। দেহ দু’টি উদ্ধার করা হয়। ওই দু’টি দেহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

প্রাথমিক ভাবে অনুমান, ৩-৪ দিন আগে মৃত্যু হয়েছে দু’জনেরই। তবে এখনও কারও পরিচয় জানা যায়নি। বিসর্জন চলাকালীন এ ভাবে জোড়া দেহ উদ্ধার হওয়ায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। জানা গিয়েছে, একজনের বয়স ৬৫-র আশেপাশে এবং অপর জনের বয়স আনুমানিক ৫০।

পুলিশ সূত্রে খবর, দেহগুলি দু’টি পৃথক জায়গা থেকে ভেসে এসে বাবুঘাটের কাছে আটকেছিল। সেখান থেকেই পুলিশ জোড়া দেহ উদ্ধার করে। দু’টির দেহর বেশীরভাগ অংশই পচে গিয়েছে। কেউ খুন করে তাদের দেহ ভাসিয়ে দিয়েছে নাকি আত্মহত্যা করেছেন ওই দু’জন, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। দু’জনেই কি দু’জনকে চিনতেন নাকি নেহাতই কাকতালীয়ভাবে একই জায়গা থেকে দেহগুলি উদ্ধার হয়েছে, তাও তদন্তসাপেক্ষ।

আগামী সোমবার গঙ্গার ঘাটে ঘাটে চলবে প্রতিমা নিরঞ্জন। তাই বাড়ানো হয়েছে গঙ্গার ঘাটের নিরাপত্তা। ঘাটগুলির নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছেন ৩ হাজার পুলিশ কর্মী। গঙ্গাবক্ষে স্পিড বোটে চলছে নজরদারি। রয়েছে রিভার ট্রাফিক গার্ড ও বিপর্যয় মোকাবিলা টিম। ২টি ওয়াচ টাওয়ার থেকে চলছে পুলিশের নজরদারি। তা সত্ত্বেও দু’টি দেহ উদ্ধারের ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest