পুরুষের তুলনায় যৌন চাহিদা বেশি নারীর, নেপথ্যে কোন রহস্য?

নারী-পুরুষ। দুই ভিন্ন সত্ত্বা। ভিন্ন শারীরিক গঠন। ভিন্ন চাহিদা। লিঙ্গভেদে সেরা হওয়ার তাগিদ বহু বছরের। তবে যৌনতার ক্ষেত্রে নারী মনকে প্রাধান্য দেওয়ার প্রবৃত্তি এদেশে একটু কমই রয়েছে। অথচ শরীর নিয়ে মহিলারাই বেশি স্পর্শকাতর। এমনটাই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। পুরুষদের তুলনায় নারীদের যৌন চাহিদা কেন বেশি? এর নেপথ্যে কয়েকটি যুক্তি দেখানো হয়েছে।

চাহিদার তারতম্য– পুরুষরা যেমন নারীর শরীর, তাঁর বক্ষ বিভাজিকা, নিতম্বের প্রতি আকর্ষিত হন। নারীরা অবশ্যই পুরুষদের সুঠাম দেহ উপভোগ করেন। তবে তার চেয়েও বেশি তাঁদের অন্য চাহিদা থাকে। সঙ্গীর কথা বলার ধরন, তাঁর চোখের চাহনি, ব্যবহার, স্পর্শের ধরন তাঁদের শরীরের আগল খুলতে প্রশ্রয় দেয়।

একাধিক অর্গ্যাজম– চরম সুখের ক্ষেত্রে মহিলাদের পুরুষ নির্ভরতা একটু কমই থাকে। প্রতিপক্ষের চাইতে এই ময়দানে মহিলারা একটু বেশেই সক্ষম। একাধিকবার অর্গ্যাজমে সক্ষম নারী শরীর। শরীরের উষ্ণতার জন্য পুরুষ শরীর কীভাবে ব্যবহার করতে হয়, তা তাঁরা ভালভাবেই বোঝেন।

আরও পড়ুন: সঙ্গিনীকে দ্রুত উত্তেজিত করতে চান? জেনে নিন কোথায় কোথায় টাচ করবেন…

নতুনত্বে আগ্রহী – একঘেয়ে যৌনতা মহিলাদের কোনও কালেই পছন্দ নয়। নিত্যনতুন রতিক্রিয়ার কৌশলে আগ্রহী থাকেন তাঁরা। নতুনত্বকে মুক্ত মনে গ্রহণ করতে পারেন। আবার তাতে অল্প সময়েই দক্ষ হয়ে ওঠেন।

মধ্য বয়সের ইচ্ছে – মধ্য বয়সে মহিলাদের যৌন চাহিদা বেড়ে যায়। কারণ নির্দিষ্ট বয়সের পর মহিলাদের মেনোপজের আতঙ্ক থাকে। এক্ষেত্রে সময়ের আগেই যৌনক্রিয়ার যাবতীয় সুখ উপভোগ করতে চান বেশিরভাগ নারীরা।

স্থির লক্ষ্য – শরীরের ক্ষেত্রে নারীরা লক্ষ্যে স্থির থাকে। পুরুষদের ক্ষেত্রে বহুগামিতা বেশি দেখা যায়। তবে নারীরা একজনের সঙ্গে শরীর ভাগ করে নিতে ভালবাসেন বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। আর একবার সঙ্গী বেছে নিলে তাঁকেই মন-প্রাণ এবং শরীর সঁপে দেন। ফলে সঙ্গীর প্রতি তাঁদের প্রত্যাশাও বেড়ে যায়।

আরও পড়ুন: সুস্থ জীবনযাপনের জন্য এই ৫ টি Sex Position সেরা – আপনি ক’টা ট্রাই করেছেন?