প্রতিদিন শারীরিক মিলনের অনেক উপকারিতা…জানুন বিস্তারিত

সম্পর্ককে আরও রোমান্টিক করে তুলতে বা ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশের খাতিরে শুধু নয়, বরং শরীরকে চাঙ্গা রাখতে প্রতিদিন শারীরিক মিলনের প্রয়োজন রয়েছে। সম্প্রতি প্রকাশিত বেশ কিছু স্টাডিতে একথা প্রমাণিত হয়ে গেছে যে একাধিক রোগকে দূরে রাখতে সেক্সের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে! শুধু তাই নয়, যৌন সম্পর্কের সময় শরীরের ভিতরে এমন কিছু পরিবর্তন হতে শুরু করে যে তার প্রভাবে আরও বেশ কিছু সুফল মেলে।

১. শরীরের বয়স যায় কমে:

প্রতিদিন জীবনসঙ্গীকে পাগলের মতো ভালোবাসলে এমন কিছু হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়, যার প্রভাবে ত্বক এবং শরীরের বয়স প্রায় ৫-৭ বছর কমে যায়। তবে এক্ষেত্রে রয়েল এডিনবার্গ হাসপাতালের বিখ্যাত নিউরো সাইকোলজিস্ট ডাঃ ডেভিড উইকের এক গবেষণার দিকে নজর ফেরানোর প্রয়োজন রয়েছে। কারণ এই গবেষণায় দেখা গেছে শুধু বেশি সংখ্যক বার সেক্স করলেই যে এমন উপকার মেলে, তা নয়। বরং শারীরিক মিলন হতে হবে সুখকর, তবেই বয়স কমবে চোখে পরার মতো!

২. বন্ধ্যাত্বের সমস্যা ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারবে না:

বেশ কিছু স্টাডিতে দেখা গেছে নিয়মিত যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হলে স্পার্ম কাউন্টের উন্নতি ঘটে, সেই সঙ্গে মেয়েদের শরীরে এমন কিছু হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়, যার প্রভাবে পিরিয়ড সংক্রান্ত নানাবিধ সমস্যা দূর হতেও সময় লাগে না। ফলে স্বাভাবিকভাবেই বাবা-মা হওয়া স্বপ্ন পূরণের ক্ষেত্রে কোনও বাঁধা আসার আশঙ্কা প্রায় থাকে না বললেই চলে।

আরও পড়ুন: প্রথমবার কন্ডোম ব্যবহার করছেন? মাথায় রাখুন এই সাতটি বিষয়

৩. শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে:

সপ্তাহে ২ থেকে ৩ দিন সেক্স করলে শরীরে ইমিউনোগ্লোবিউলিন এ (immunoglobulin A) নামক বিশেষ এক ধরনের অ্যান্টিবডির উৎপাদন বেড়ে যায়, যে কারণে দেহের রোগ প্রতিরোধক ব্যবস্থা এতটাই শক্তিশালী হয়ে ওঠে যে ছোট-বড় কোনও রোগই ধারে কাছে ঘেঁষার সুযোগ পায় না। সেই সঙ্গে সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও আর থাকে না। তাই তো বলি বন্ধু, সুস্থ শরীরে বহুদিন যদি বাঁচতে হয়, তাহলে যে কোনও অজুহাতেই নিয়মিত যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হতে ভুলো না যেন!

৪. আয়ু বাড়ে:

কম করে ৮০-৯০ বছর সুস্থ শরীরে বাঁচার ইচ্ছা আছে নাকি? তাহলে তো বন্ধু সপ্তাহে ৩-৪ বার সেক্স করতেই হবে। কারণ অস্ট্রেলিয়ান বিজ্ঞানীদের করা এক গবেষণায় দেখা গেছে সপ্তাহে ৪ দিন যৌন সহবাস করলে কোনও রোগের কারণে হঠাৎ করে মারা যাওয়ার আশঙ্কা প্রায় ৫০ শতাংশ কমে যায়। আর প্রতিদিন যদি সেক্স করতে পারেন, তাহলে তো কথাই নেই!

৫. হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা কমে:

“হার্ট” নামক আন্তর্জাতিক পত্রিকায় প্রকাশিত এক স্টাডিতে দেখা গেছে গত কয়েক বছরে সারা বিশ্বেই কমবয়সি মেয়েদের মধ্যে বেড়েছে হার্টের রোগের প্রকোপ। আর এর পিছনে মূল কারণ হল ইস্ট্রোজেন হরমোনের ক্ষরণ ঠিক মতো না হওয়া। বিশেষজ্ঞদের মতে অনিয়ন্ত্রণ জীবনযাপন এবং বেশি মাত্রায় জাঙ্ক ফুড জাতীয় খাবার খাওয়ার কারণে শরীরে এই বিশেষ হরমোনটির মাত্রা যাচ্ছে কমে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই দুর্বল হয়ে পরছে হার্ট।

এমন পরিস্থিতিতে হার্টকে যদি চাঙ্গা রাখতে হয়, তাহলে সপ্তাহে কম করে ৩ দিন শারীরিক মিলন মাস্ট! কারণ কুইন ইউনিভার্সিটির গবেষকদের করা এক পরীক্ষায় দেখা গেছে নিয়মিত সেক্স করলে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার আশঙ্কা প্রায় ৩০ শতাংশ কমে যায়। সেই সঙ্গে কমে স্ট্রোকের আশঙ্কাও।

আরও পড়ুন: জানেন কি, চুমু খেলে ৬৮ ক্যালোরি ঝরে আর শারীরিক মিলনে ঝরে ২৩০ ক্যালোরি!