টিকার অভাব পূরণের লক্ষ্য, আইনি রক্ষাকবচ পেতে পারে ফাইজার-মর্ডানা(Pfizer, Moderna )

ফাইজার ইতিমধ্যে জানিয়েছে যে আগামী জুলাই থেকে অক্টোবরের মধ্যে ভারতকে পাঁচ কোটি টিকার ডোজ দিতে তৈরি আছে। ইতিমধ্যে ভারতীয় সরকারের নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেছে মার্কিন সংস্থা। তাতে ফাইজারের কার্যকারিতা, অনুমোদন সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য প্রদান করা হয়েছে।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

করোনাভাইরাস টিকার অভাব পূরণে এবার বড় পদক্ষেপ ফেলতে পারে কেন্দ্র। সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, যদি জরুরি ভিত্তিতে ভারতে টিকা ব্যবহারের জন্য ফাইজার এবং মর্ডানা আবেদন করে, তাহলে দুই সংস্থাকে আইনি কার্যকলাপের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ দেওয়া হতে পারে।

ফাইজার ইতিমধ্যে জানিয়েছে যে আগামী জুলাই থেকে অক্টোবরের মধ্যে ভারতকে পাঁচ কোটি টিকার ডোজ দিতে তৈরি আছে। ইতিমধ্যে ভারতীয় সরকারের নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেছে মার্কিন সংস্থা। তাতে ফাইজারের কার্যকারিতা, অনুমোদন সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য প্রদান করা হয়েছে। পাশাপাশি মার্কিন সংস্থার তরফে দাবি করা হয়েছে, ভারতে হদিশ পাওয়া বি.১.১৬৭ (B.1.617) প্রজাতির করোনাভাইরাসের উপর ফাইজারের টিকার ‘দারুণ কার্যকারিতা’-র প্রমাণ মিলেছে। যে টিকা ১২ বছর বা তার ঊর্ধ্বে সকলের জন্য উপযুক্ত বলে দাবি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : নাকের লোম ওঠানোর সময় খুবই সাবধান, পরিণতি হতে পারে মারাত্মক

তারইমধ্যে কেন্দ্রের একটি সূত্র জানিয়েছে, ফাইজার এবং মর্ডানার মতো সংস্থাকে অন্যান্য দেশে যেরকম আইনি রক্ষাকবচ পেয়েছে, সেরকম ধাঁচেই দুই সংস্থার টিকাকে ভারতেও সুরক্ষাকবচ দেওয়ার পরিকল্পনা চলছে। তা মঞ্জুরও হতে যাবে বলে আশাবাদী ওই সূত্র।

তাৎপর্যপূর্ণভাবে সেই খবরের মধ্যেই ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার (ডিসিজিআই) তরফে জানানো হয়েছে, যে বিদেশি টিকাগুলি ইতিমধ্যে মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সি, ব্রিটেনের মেডিসিন অ্যান্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটর এজেন্সি এবং জাপানের ফার্মাকিউটিক্যাল অ্যান্ড মেডিক্যাল ডিভাইস এজেন্সির অনুমোদন পেয়েছে বা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি ব্যবহারের তালিকায় আছে, সেই টিকাগুলির প্রতিটি ব্যাচের টিকার সেন্ট্রাল ড্রাগস ল্যাবরেটরি পরীক্ষা নাও করা যেতে পারে। যে সিদ্ধান্তের ফলে বিদেশি টিকার জোগান প্রক্রিয়া আরও সহজ হবে বলে মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

আরও পড়ুন : ছোট স্তন নিয়ে অবসাদ? কোনও সার্জারি ও ওষুধ ছাড়াই বড় করুন এ ভাবে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest