‘চলছে কোটি কোটি টাকার খেলা,রাজস্থানেও সরকার ফেলতে মরিয়া বিজেপি ‘

রাজস্থানের কংগ্রেস সরকার ফেলতে মরিয়া বিজেপি (BJP trying to topple Rajasthan Government)। ঘোড়া কেনাবেচার উদ্যোগ নিয়েছে। বিধায়কপিছু ১৫ কোটি টাকার প্রস্তাব দিচ্ছে গেরুয়া শিবির। শনিবার এভাবেই অভিযোগে সরব হলেন অশোক গেহলট (CM Gehlot)। তিনি বলেন, “আমাদের সরকার করোনা সংকট থেকে মুক্তি দিতে উদ্যোগী হয়েছে। এদিকে বিজেপি ক্রমাগত চেষ্টা করছে রাজনৈতিক অস্থিরতা তৈরি করতে। সংখ্যাগুরু সরকারকে সংখ্যালঘু করতে। শিবির বদলানোর জন্য কংগ্রেসের বিধায়কপিছু ১৫ কোটি টাকা পর্যন্ত প্রস্তাব দিচ্ছে তারা।”

আরও পড়ুন : প্রেসক্রিপশন যথেষ্ট নয়, ওষুধ কিনতে এবার লাগবে আধার কার্ড !

গেহলট বলেন, রাজ্য সরকার যখন করোনার সঙ্গে লড়াই করার আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছে, সেসময় রাজ্য সরকারকে ক্রমাগত বিপাকে ফেলার চেষ্টা করে চলেছে বিজেপি। দেশের মানুষের জানা উচিত, রাজ্যে কংগ্রেস একাই সংখ্যাগরিষ্ঠ। তার মধ্যেই বিজেপি আপ্রাণ চেষ্টা করছে কীভাবে এই সরকারকে ফেলা যায়।

মধ্যপ্রদেশ ও কর্ণাটকে সরকার গড়েও শেষপর্যন্ত তা ধরে রাখতে পারেনি কংগ্রেস। তার ঘরে ভেঙেছে বিজেপি। গেহলটের দাবি ওই দুই রাজ্যও ঘোড় কেনাবেচা হয়েছিল। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য রাজ্যে বিধায়কদের ১৫ কোটি টাকা পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে। এই চেষ্টা টানা চালিয়ে আসছে বিজেপি।

গেহলট আরও বলেন, বিজেপি যে অসাংবিধানিকভাবে সরকার ভাঙার চেষ্টা করে চলেছে তাতে পরের নির্বাচনে ওদের উচিত শিক্ষা হবে। দেশের মানুষ ওদের বুঝিয়ে দেবে। ২০০ আসনের রাজ্যস্থান বিধানসভায় কংগ্রেসের দখলে রয়েছে ১০৭ আসন। পাশাপাশি ১২ নির্দল বিধায়কের সমর্থন নিয়ে সরকার গঠন করেছে কংগ্রেস। এছাড়াও আরএলডি, সিপিআইএম, বিটিবির ৫ বিধায়কও গেহলট সরকারকে সমর্থন দিয়েছেন।

ক্ষুব্ধ গেহলট বলেন, “নির্লজ্জের মতো রাজ্যসভার ভোটে জিততে গুজরাতে সাত জন বিধায়ক কিনেছে বিজেপি।একই জিনিস রাজস্থানে করতে চেষ্টা করেছিল। কিন্তু আমরা সফল হতে দিইনি।” তাঁর মন্তব্য, “মানুষ সব দেখছে। আর আগামি ভোটে তার জবাব দেবে। বিজেপি আগামি দিনে ঔদ্ধত্যের জবাব পাবে।”

আরও পড়ুন : পড়াশোনায় সন্তানের অনীহা ? বাস্তু মেনে চললে পেতে পারেন সুরাহা