“হাতিটির খুনিদের দেওয়া হবে কড়া শাস্তি ,” তদন্তের নির্দেশ কেন্দ্রের

নয়াদিল্লি: নৃশংস হত্যাকারীদের শাস্তি চাই। কেরলে অন্তঃসত্ত্বা হাতি খুনের ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী পিন্নারাই বিজয়ন। এবার বীভৎস এই ঘটনার তদন্তের রিপোর্ট চেয়ে পাঠাল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় পরিবেশ মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর তদন্তের মুখোমুখি রিপোর্ট দেশের নির্দেশ দিয়েছেন কেরল সরকারকে। “দোষীদের কড়া শাস্তি দেওয়া হবে,” জানিয়েছে কেন্দ্র। 

কেরালায় বাজি ঠাসা আনারস খাইয়ে গর্ভবতী হাতির খুনের ঘটনা কোনওমতেই বরদাস্ত করা হবে না বলে জানাল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সরকার এই ঘটনার তদন্ত করবে বলে জানিয়েছন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। এই ঘৃণ্য অপরাধ ভারতীয় সংস্কৃতির বিরোধী বলে মন্তব্য করেছেন মন্ত্রী।

আরও পড়ুন: মোদির জন্য আসছে মিসাইল হানা এড়াতে সক্ষম বিশেষ ভিভিআইপি বিমান

পালাক্কড় জেলার সাইলেন্ট ভ্যালিতে ইতিমধ্যে পৌঁছেছে কোজিকোড়ের বিশেষ তদন্তকারী টিম। সংবাদমাধ্যমকে এ বিষয়ে নিজেই জানিয়েছেন বিজয়ন।প্রাথমিক রিপোর্ট বলছে, আনারসের মধ্যে থাকা বাজির বিস্ফোরণে চোয়াল ভেঙে যায় হাতিটির। সেই সঙ্গে বিপুল পরিমাণে রক্তক্ষরণ শুরু হয়।

কেরলে সাধারণত এ ধরনের বাজি ভরা আনারস ক্ষেতে বুনো শুয়োর প্রবেশ করলে ব্যবহার করেন কৃষকরা। বিশালাকায় বুনো শুয়োর মারতে এই ধরনের বিস্ফোরক আনারস ব্যবহৃত হয় কেরলের এই অংশে। সেই আনারস কীভাবে হাতিটি পেল? কোথাও রাখা এই ধরনের আনারস খেয়ে নাকি উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভবে কোন‌ও গ্রামবাসী এই আনারস হাতিটিকে খাইয়েছিলেন সেই নিয়েও প্রশ্ন তদন্তকারীদের।

কেরালায় বাজি ভরা আনারস খাইয়ে গর্ভবতী হাতি খুনের ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। জাভড়েকর যদিও তাঁর ট্যুইটে এটি কেরালার মাল্লাপুরমের ঘটনা বলে উল্লেখ করেছেন, তবে আদতে তা ঘটেছে কেরালার পালাক্কাড় জেলায়। 

আরও পড়ুন: রেকর্ড আক্রান্ত, রেকর্ড মৃত্যু! ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে মৃত ২৬০, আক্রান্ত ৯৩০৪

Gmail