‘লাভ জিহাদ’ রুখতে নয়া বিল আনছে মধ্যপ্রদেশ, ‘দোষী’ হলেই ৫ বছরের জেল!

‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে আইন প্রণয়নের বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে হরিয়ানা এবং কর্নাটক। সেই রেশ ধরে দ্রুত নয়া বিল পেশ করতে চলেছে আরও এক বিজেপি-শাসিত রাজ্য মধ্যপ্রদেশ।

প্রেম-ভালোবাসাও যে জিহাদ হতে পারে, বিজেপি এমন প্রবলভাবে না এলে মানুষ জানতেই পারতেন না। গেরুয়া শিবিরের দরকার বিদ্বেষ। তাতে কমতি হলেই তাতে নেতা-কর্মীরা স্বচ্ছন্দ বোধ করেন না। কেমন যেন একটা গা ম্যাজ ম্যাজে ভাব। তাই কর্মী এবং ভোটারদের চাঙ্গা রাখতে এমন সব ইস্যু কিভাবে কাজে লাগানো যায় তা নিয়ে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি নিত্য নতুন ফন্দি বের করছে।

মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র জানিয়েছেন যে এই বিষয় শিগগিরই বিধানসভায় আইন পাস করা হবে। আইনে এটিকে জামিন অযোধ্য অপরাধ হিসাবে গণ্য করা হবে এবং দোষীদের জন্য পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের বিধান থাকবে। এর আগে যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশ সরকারও ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে আইন তৈরির কথা বলেছে।

আরও পড়ুন: বাজি পোড়াতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত BJP সাংসদ রীতা বহুগুণার নাতনি

মঙ্গলবার ভোপালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র জানান, জোর করে দুই ধর্মের মধ্যে বিয়ে করলে বা ‘লাভ জিহাদ’-এর প্রচার করলে নয়া বিলে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের প্রস্তাব আছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে জামিন-অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হবে। তিনি বলেন, ‘লাভ জিহাদের বিরুদ্ধে শীতকালীন অধিবেশনে আমরা ২০২০ সালের মধ্যপ্রদেশ ধর্ম স্বতন্ত্র বিল পেশ করব। যার অর্থ হল অন্য ধর্মের ব্যক্তিকে বিয়ের জন্য একজন মহিলাকে বাধ্য করা বা প্রলোভন দেখানো এবং ধর্ম পরিবর্তনের জন্য পরে তাঁকে (মহিলা) অত্যচার করা।’

আসন্ন বিধানসভা অধিবেশনেই শিবরাজ সিং চৌহ্বানের সরকার লাভ জিহাদ সম্পর্কিত ধর্মীয় স্বাধীনতা আইন সংক্রান্ত একটি বিল আনবে। আইনটি তৈরি হওয়ার পরে জামিন অযোগ্য ধারার  মামলা দায়ের করা যাবে এবং দোষী ব্যক্তিকে পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল খাটতে হবে।

মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি, দুই ধর্মের মধ্যে বিয়েতে কোনও আপত্তি নেই বিজেপি সরকারের। নয়া বিলের মাধ্যমে শুধুমাত্র ‘লাভ জিহাদ’-র বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তবে কেউ যদি বিয়ের জন্য নিজের ধর্ম পরিবর্তন করতে চান, তাহলে বিয়ের একমাস আগে জেলাশাসককে সে বিষয়ে জানাতে হবে।

তবে কেবল বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ ও উত্তরপ্রদেশই নয় ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে কড়া আইনের পথে এগোচ্ছে গেরুয়া শিবিরের আরও দুই রাজ্য হরিয়ানা ওকর্নাটকও। গত ৬ নভেম্বর কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা জানান, লাভ জিহাদের নামে ধর্মান্তরকরণের বিরুদ্ধে আইন আনতে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।  হরিয়ানার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল ভিজ ইতিমধ্যে জানিয়েছেন ‘লাভ জিহাদ’ রুখতে আইন আনার কথা ভাবছে তাদের সরকারও।

আরও পড়ুন: নারকীয়! যোগী-রাজ্যে ৭ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ করে খুন, শরীর থেকে বের করে নেওয়া হল যকৃৎ