Covid-19: প্লাজমা থেরাপিতে আপাতত স্থিতিশীল অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী গগৈ

করোনা আক্রান্ত হয়েছেন অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ. সোমবার গভীর রাতে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। গগৈয়ের দেহে অক্সিজেনের পরিমাণও কমে আসে। এর পরই তাঁকে প্লাজমার পাশাপাশি কৃত্রিম উপায়ে অক্সিজেন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকেরা। প্লাজমা থেরাপির পর আপাতত তাঁর অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে মেডিক্যাল বোর্ড।

গত ২৫ অগস্ট কোভিড পজিটিভ হওয়ার কথা নিজেই টুইট করে জানান বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা অসমের তিন বারের মুখ্যমন্ত্রী গগৈ। পরের দিন তাঁকে গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল (জিএমসিএইচ)-এ ভর্তি করানো হয়। সপ্তাহখানেক ধরে সেখানেই চিকিৎসাধীন গগৈ।

আরও পড়ুন : চিন চাইলে ভারতীয় সেনার ক্ষতি করতে পারে আগের থেকেও বেশি , হুঁশিয়ারি বেজিংয়ের

জিএমসিএইচ-এর পালমোনারি মেডিক্যাল বিভাগের প্রধান যোগেশ শর্মার নেতৃত্বে একটি নয় সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি। এ দিন জিএমসিএইচ-এর মুখপাত্র জানিয়েছেন, গত কাল মধ্যরাত থেকে গগৈকে ১ ইউনিট প্লাজমা এবং ২ লিটার অক্সিজেন দেওয়া হয়েছে।

৮৫ বছরের গগৈকে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরই তাঁকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলেন অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। তরুণ গগৈয়ের ছেলে তথা কংগ্রেস সাংসদ গৌরব গগৈর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন তিনি। এ দিন গগৈয়ের শারীরিক অবস্থা নিয়ে টুইটও করেছেন হিমন্ত। তিনি বলেন, “সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈয়ের হঠাৎই অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৮৮ শতাংশ হয়ে যায়। চিকিৎসকেরা ১ ইউনিট প্লাজমা এবং মাস্কের মধ্যে দিয়ে ২ লিটার অক্সিজেন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। গগৈয়ের অক্সিজেন স্যাচুরেশন এখন ৯৬ অবং ৯৭ শতাংশের মধ্যে রয়েছে।”

আরও পড়ুন : ঘরময় রক্ত, বিছানা থেকে উদ্ধার যুবকের দেহ, চাঞ্চল্য তোপসিয়ায়