যোগী রাজ্য যেন মৃত্যু উপত্যকা! এ বার গঙ্গার ধারে বালিতে পোঁতা একাধিক দেহ উদ্ধার

এর আগে গত কয়েকদিন ধরে বিহার, উত্তরপ্রদেশে, মধ্যপ্রদেশে গঙ্গায় ভেসে এসেছে মোট ৯৬টি দেহ।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কিছুদিন ধরেই লাশ ভেসে আসার খবরে আতঙ্কিত গোটা দেশ। এরপর আবারও খবরের শিরোনামে যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ে গঙ্গার ধারে মিলল বালির নিচে পোঁতা কয়েকশো মৃতদেহ। প্রত্যেকটি মৃতদেহ গেরুয়া কাপড়ে মোড়ানো। নদীর ধারে দুটি জায়গা থেকে দেহ উদ্ধার হয়েছে।

এই দেহগুলি করোনা আক্রান্তের কিনা, সেই বিষয়ে কোনও স্পষ্ট তথ্য নেই স্থানীয় প্রশাসনের কাছে। জেলাশাসক রবীন্দ্র কুমার জানিয়েছেন, কিছু মানুষ দেহ ভস্মীভূত না করে বালির মধ্যে সমাহিত করেন। খবর পেয়ে আধিকারিকদের ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: টিকার ২ ডোজ নিয়েও চিকিৎসকের মৃত্যু, দিল্লির হাসপাতালে এক মাসে আক্রান্ত ৮০ কর্মী

স্থানীয়দের বিশ্বাস, মৃতদেহ পোড়ানোর কাঠের অভাবে কেউ কেউ এ ভাবে দেহ বালিতে সমাধিস্থ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অনেকে মনে করছেন, যোগী রাজ্যে করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর হিসেবে যে গরমিলের অভিযোগ উঠছে, তা বালিতে সমাহিত করে এ ভাবেই ধামাচাপা দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে গত কয়েকদিন ধরে বিহার, উত্তরপ্রদেশে, মধ্যপ্রদেশে গঙ্গায় ভেসে এসেছে মোট ৯৬টি দেহ। সৎকারের জায়গার অভাবে করোনা আক্রান্তদের দেহ এভাবে নদীতে ফেলে দেওয়া হচ্ছে বলে অনুমান। বিহারের বক্সারে পাওয়া গিয়েছে ৭১টি দেহ ও উত্তর প্রদেশের গাজিপুরে ২৫টি। তবে দেহগুলি সত্যিই করোনা আক্রান্তের কিনা, সেই বিষয়ে এখনও কোনও স্পষ্ট তথ্য নেই। এই ঘটনায় দুই রাজ্যের কাছ থেকেই এই বিষয়ে রিপোর্ট চেয়েছেন কেন্দ্রীয় জল শক্তি মন্ত্র গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত।

আরও পড়ুন: ২ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের ওপরে টিকার ট্রায়াল শুরু করতে চলেছে ভারত বায়োটেক

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest