দিল্লিতে নাশকতার ছক বানচাল, গুলির লড়াইয়ের পর গ্রেফতার সন্দেহভাজন ISIS জঙ্গি

শুক্রবার রাতে গুলির লড়াইয়ের পর নয়াদিল্লি থেকে সন্দেহভাজন ইসলামিক স্টেট (আইসিস) জঙ্গিকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতের কাছ থেকে দুটি ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) ও একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানীর ধৌলা কুয়ান ও করোলবাগ মধ্যে একটি খাঁড়ির কাছে ওই সন্দেহভাজন জঙ্গির গতিবিধির খবর পায় পুলিশ। তাকে ধরার জন্য জাল বিছানো হয়। গুলির লড়াইয়ের পর আবদুল ইউসুফ খান নামে ওই সন্দেহভাজন আইসিস জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা।

আরও পড়ুন: অসমে কংগ্রেস ও আজমলের দল জোট বেঁধে লড়বে বিধানসভায়, বাকি কেবল ঘোষণা !

দিল্লি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (বিশেষ সেল) প্রমোদ সিং কুশওয়াহা বলেন, ‘গুলি বিনিময় হয়। তারপর তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে একজন লোন উলফ এবং রাজধানীতে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল। তার থেকে আমরা একটি পিস্তল এবং একটি পিস্তল উদ্ধার করেছি। দিনে আমরা আরও তথ্য দেব।’

এ সপ্তাহের গোড়াতেই দুই আইএস জঙ্গিকে দোষী সাব্যস্ত করে দিল্লি আদালত। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মুসলিম যুবকদের জঙ্গি দলে নিয়োগ করার অভিযোগ ছিল ওই দু’জনের বিরুদ্ধে। জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ) ২০১৬-’১৭-র একটি মামলায় যে ১৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট এনেছে, সেই তালিকায় রয়েছে আবু আনাস এবং নাজমুল হুদা নামে ওই দু’জন। এনআইএ সূত্রে খবর, জুনুদ-উল-খিলাফা-ফিল-হিন্দ নামে একটি সংগঠন তৈরি করেছিল এই অভিযুক্তরা। এই সংগঠনটি আইএস-এর সঙ্গে জড়িত বলে দাবি এনআইএ-র।

আরও পড়ুন: মাস্ক-গ্লাভস-থার্মাল গান, ভোটের জন্যে নতুন নির্দেশিকা নির্বাচন কমিশনের!