পরিযায়ীদের সঙ্গে রাহুলের সাক্ষাৎকে ‘ড্রামাবাজি’ বললেন নির্মলা

নয়াদিল্লি : লকডাউনে আটকে পড়ে দিল্লির একটি ফ্লাইওভারেই পাড়ি জমিয়েছেন বেশ কয়েকজন পরিযায়ী শ্রমিক। তাঁদের সঙ্গে দেখা করে কথা বলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। তাতেই বেজায় চটেছেন নির্মলা সীতারমণ। এটিকে তিনি নাটকবাজি বলেন।

তিনি বলেন, “পরিযায়ীদের সঙ্গে কথা বলে তাঁদের সময় নষ্ট না করে তাঁদের ব্যাগ বয়ে দিন। কংগ্রেস শাসিত রাজ্যে, আরও ট্রেনের আবেদন করুন, যাতে আরও পরিযায়ী বাড়ি ফিরতে পারেন। ওরা আমাদের নাটুকে বলে। গতকাল কী হল? এটাও নাটক”। সীতারমন বলেন, “সনিয়া গান্ধীর কাছে আমার বিনীত অনুরোধ – আসুন আমরা এই সমস্যাটি নিয়ে আরও দায়িত্বশীলতার সঙ্গে মোকাবিলা করি”।

আরও পড়ুন: কাশ্মীরের ডোডায় সংঘর্ষ, খতম হিজবুল জঙ্গি ও শহিদ এক জওয়ান

রবিবার ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের পঞ্চম দফার ঘোষণার শেষ সাংবাদিকদের সামনে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন, “পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে দেখা করা বা তাঁদের সঙ্গে বসে থেকে সময় নষ্ট না করে তাঁদের সঙ্গে হেঁটে গিয়ে তাঁদের সুটকেস বয়ে নিয়ে যাওয়া ভালো। কংগ্রেসশাসিত রাজ্য সরকারগুলির কাছে অনুরোধ, তারা পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে আরও বেশি ট্রেনের ব্যবস্থা করুক। তারা আমাদের নাটকবাজ বলে। গতকাল কী ঘটল? এটা আসলে নাটকবাজি”।

শনিবার দক্ষিণপূর্ব দিল্লিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে দেখা করেন রাগা। সোশ্য়াল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা যায়, মুখে মাস্ক পরে একটি ফুটপাথে বসে পরিযায়ী শ্রমিক ও তাঁদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলছেন তিনি। সেই পরিযায়ীরা সবাই হরিয়ানার আম্বালা থেকে প্রায় ১৩০ কিমি পথ পায়ে হেঁটে অতিক্রম করে ফেলেছেন। কেউ উত্তরপ্রদেশে আবার কেউ মধ্যপ্রদেশে নিজের বাড়িতে ফিরছেন।

এখনও পর্যন্ত বহু শ্রমিক হেঁটে বা সাইলেকে বাড়ি ফেরার পথে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। উত্তরপ্রদেশের ভয়াবহ দুর্ঘটনার রেশ কেটে ওঠার আগেই মধ্যপ্রদেশে ঘটে গিয়েছে আরও এক মর্মান্তিক ঘটনা। ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪ পরিযায়ী শ্রমিকের। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্য প্রদেশের বরওয়ানিতে। সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, ট্যাংকারের চাকায় পিষ্ট হয়ে শনিবার রাতে এক পরিযায়ী শ্রমিক, তাঁর স্ত্রী এবং আরও ২ জন ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ওই চারজনই মহারাষ্ট্র থেকে ইন্দোরে ফিরছিলেন।

আরও পড়ুন: আত্মনির্ভর ভারত মানে ঢালাও বেসরকারিকরণ! সরকারি সংস্থায় রাশ সরিয়ে স্পষ্ট বার্তা কেন্দ্রের

Gmail 2