দেশে প্রথম !প্যাকেট ছাড়া সিগারেট-বিড়ি বিক্রি নিষিদ্ধ মহারাষ্ট্রে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

খোলা সিগারেট-বিড়ি বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করল মহারাষ্ট্র। দেশে এই ঘটনা প্রথম। ফলে এখন থেকে ওই রাজ্যে প্যাকেট ছাড়া সিগারেট বা বিড়ি কেনা যাবে না। মূলত ধূমপায়ীদের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়াতেই এই পদক্ষেপ করা হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকে। এতে বহু ধূমপায়ী বিপত্তিতে পড়লেও মহারাষ্ট্র সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন চিকিৎসক মহলের একাংশ।

এই নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে গত বৃহস্পতিবার। একটি বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য দফতরের মুখ্যসচিব প্রদীপ ব্যাস জানিয়েছেন, সিগারেট এবং অন্যান্য তামাকজাত দ্রব্য (বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ এবং বাণিজ্য, উৎপাদন, সরবরাহ ও বিতরণ নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০০৩-এর ৭ ধারার ২ নম্বর উপধারার আওতায় খোলা সিগারেট, বিড়ি বিক্রিতে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

আরও পড়ুন : ‘কোনও রাজনৈতিক দলের দায়িত্ব কাঁধে নেবেন না’, রাজ্যপালের ‘রুটিন’ অভিযোগের জবাবে ৯ পাতার চিঠি মমতার

মহারাষ্ট্র সরকারের এই পদক্ষেপের ফলে কমবয়সিদের মধ্যে ধূমপানের প্রবণতা কমানো যাবে বলে মনে করছেন অনেকে। টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালের ক্যানসার সার্জন পঙ্কজ চতুর্বেদীর মতে, এতে যুবসমাজে ধূমপানের অভ্যাসও কমবে।

তিনি বলেন , “ভারতে তামাকজাত দ্রব্য সেবন মহামারিতে পরিণত হয়েছে ১৬-১৭ বয়সিদের মধ্যে ধূমপানের অভ্যাসের ফলে। আর্থিক কারণেই তারা গোটা প্যাকেট না কিনে খুচরো বা খোলা সিগারেট-বিড়ি কেনে।”পঙ্কজ বলেন, “সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, তামাকজাত দ্রব্যের উপর ১৮ শতাংশ কর চাপানোর পর ধূমপায়ীদের সংখ্যা কমে গিয়েছে ৮ শতাংশ। কিন্তু, ধূমপায়ীদের যদি খুচরো বা খোলা সিগারেট-বিড়ি কিনতে দেওয়া হয়, তবে তাঁরা এতে চাপানো করের ভার বুঝতে পারেন না।”

তবে অনেকে মনে করছেন ইটা তেমন কাজের নয়। তাদের বক্তব্য যারা নেশা করে তারা তা যেকোনও মূল্যে করবে। এমনকি চুরি -চামারি করেও। এমন বহু মানুষ আছে যারা নেশার টাকা জোগাড় করার জন্য ভিক্ষা করে। তাই সিগারেটের প্যাকেটের দাম বাড়ালে সরকারের কোষাগারে বাড়তি টাকা জমা হতে পারে বড়জোর। কিন্তু তাতে বিড়িখোররা সাবধান হবে না। তাছাড়া এদেশে আইন হয়। কিন্তু সে আইন হয় কিন্তু তা রক্ষিত হয় না। সুতরাং এক্ষেত্রেও যে তার ব্যাতিক্রম হবে না তা অনুমান করা কঠিন নয়।

আরও পড়ুন : মোদি সরকারের বড় ধাক্কা, মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফার পর NDA ছাড়ল শিরোমণি অকালি দ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest