সংসদের বাদল অধিবেশন শুরু হতে পারে ১৪ সেপ্টেম্বর, করোনা রুখতে এবার বিশেষ সতর্কতা

করোনা আবহেও বসতে পারে সংসদের বাদল অধিবেশন। ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ১ অক্টোবর পর্যন্ত হতে পারে অধিবেশন। সংসদ বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটি প্রস্তাব দিয়েছে, ১৮ দিন ধরে চলতে পারে সংসদের অধিবেশন। সাংবিধানিক বাধ্যবাধতার কারণেই বসবে অধিবেশন। সংবিধান অনুযায়ী অধিবেশন ডাকতে হয় ৬ মাসের মধ্যে। সেই আইন মেনেই বসতে চলেছে অধিবেশন।

দেশে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ায় মাঝপথে বন্ধ করে দেওয়া হয় বাজেট অধিবেশন। তার পর ফের বসছে সংসদের অধিবেশন। সূত্রের খবর, শনি ও রবিবার অধিবেশন বন্ধ থাকবে না। সকালে ও বিকেলে অধিবেবশন বসবে। প্রতিটি অধিবেশন হবে ৪ ঘণ্টার। কিন্তু বড় প্রশ্ন করোনা নিয়ে কী সতর্কতা নেওয়া হয়েছে এবারের অধিবেশনে।কিন্তু বড় প্রশ্ন করোনা নিয়ে কী সতর্কতা নেওয়া হয়েছে এবারের অধিবেশনে।

আরও পড়ুন: PM Cares-এর টাকায় কেনা ভেন্টিলেটরে ব্যাপক ‘দুর্নীতির’ অভিযোগ’! ফাঁস RTI-এ

রাজ্যসভার সচিবালয় সূত্রে খবর, করোনা আবহে সংসদের উভয় কক্ষেই বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা হবে। সংসদের অধিবেশনে এবার অনেক নতুন বিধি দেখা যাবে। সংসদের উভয় কক্ষ এবং গ্যালারিতে সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে চলতে হবে। ১৯৫২ সাল থেকে ভারতীয় সংসদের ইতিহাসে এই প্রথম রাজ্যসভার সাংসদরা নির্দিষ্ট কক্ষের পাশাপাশি গ্যালারিতেও বসবেন। রাজ্যসভার ৬০ জন সাংসদ বসবেন কক্ষে, ৫১ জন থাকবেন গ্যালারিতে এবং বাকি ১৩২ জন বসবেন লোকসভায়। একইভাবে লোকসভার সাংসদদের জন্যও এরকম ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সাংসদদের মধ্যে যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে, সেটা নিশ্চিত করার জন্যই এই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। সংসদের ইতিহাসে এই প্রথম বড় ডিসপ্লে স্ক্রিন, গ্যালারি থেকে অধিবেশনে যোগ দেওয়ার ব্যবস্থা, জীবাণুনাশক ব্যবস্থা এবং সংসদের দুই কক্ষের মধ্যে বিশেষ কেবল ও পলিকার্বনেট সেপারেটর থাকবে।

গত ১৭ জুলাই বৈঠক করেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম বেঙ্কাইয়া নায়ডু ও লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা। সেই বৈঠকে সংসদের অধিবেশন আয়োজন করা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। অগাস্টের তৃতীয় সপ্তাহের মধ্যেই যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করার নির্দেশ দেন রাজ্যভার চেয়ারম্যান। সেই নির্দেশ অনুযায়ী কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন: মোদীর বাবার চায়ের দোকান কোথায় ছিল? কোনও তথ্য নেই রেলের কাছেই!