বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি হলেন মুকুল রায়,বড় পদে অনুপম হাজরাও

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে বিজেপিতে পদ পেয়েছেন তিনি। শনিবারই তাঁকে দলের সর্বভারতীয় সহ সভাপতি পদে বসিয়েছেন জেপি নড্ডা। সেই খবর পেয়েই সাংবাদিক বৈঠক করলেন মুকুল রায়। আর সেখানে বললেন, ‘বিশ্বের জনপ্রিয়তম নেতার নাম নরেন্দ্র মোদী।’শনিবার দলের সভাপতি জে পি নড্ডা কেন্দ্রীয় পদাধিকারিদের তালিকা ঘোষণা করেছেন।BJP-র সহ সভাপতি হয়ে মোদী, অমিত শাহ ও জেপি নড্ডাকে প্রণাম করলেন মুকুল

বড় পদ পেয়েছেন অনুপম হাজরাও। তাঁকে দেওয়া হয়েছে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের পদ। অনুপমও মুকুলের হাত ধরেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন।বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ অনুপম বিজেপির সর্বভারতীয় সম্পাদক পদ পেয়েছেন। দলের নয়া সর্বভারতীয় মুখপাত্রদের তালিকায় রয়েছেন দার্জিলিঙের বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা। অন্যদিকে, বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক পদ খুইয়েছেন রাহুল সিনহা।

আরও পড়ুন : প্রাথমিক ট্রায়ালে সফল জনসনের করোনার টিকা, এক ডোজেই কাজ!

লোকসভা ভোটের আগে তাঁর হাত ধরেই বহু তৃণমূল নেতা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। লোকসভায় সাফল্যও পেয়েছে গেরুয়া শিবির। যদিও তারপর থেকে এতদিন পর্যন্ত বঙ্গ রাজনীতির বড় কোনও পদ তাঁকে দেওয়া হয়নি। এর মধ্যে মুকুল এবং দিলীপের সংঘাত নিয়েও বহু কালি খরচ হয়েছে। সদ্যই দিলীপকে আরও একবার রাজ্য সভাপতি হিসেবে বেছে নিয়েছে বিজেপি (BJP)। তারপর থেকেই মনে করা হচ্ছিল মুকুলকে কেন্দ্রীয় স্তরে কোনও পদ দেওয়া হতে পারে। এবং সেইমতোই প্রাক্তন রেলমন্ত্রী হয়ে গেলেন দেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দলের সহ-সভাপতি।

আসলে বাংলার বিধানসভা ভোট আসছে। মুকুল যে ভোট অঙ্ক কষ্টে মাস্টার ,সেটা বিজেপি ভালোই জানে। তাছাড়া সাধারণভাবে একটা কথা প্রচার হয়ে গিয়েছে অন্য দল থেকে বিজেপিতে ঢুকলে তাদের বড় পদ দেওয়া হয় না। তাদের ‘মুহাজির’ করে রেখে দেওয়া হয়। পুরোনো দলে যেটুকু গুরুত্ব থাকতো সেটাও আর তাদের থাকছে না। মুকুল রায়ের তুলনা দেওয়া হচ্ছিল। অনেকে বলছিলেন দিলীপ ঘোষ মুকুল রায়ের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াবেন।

যারা ঘাসফুল থেকে বিজেপিতে যাবে ভাবছিলো তারা অনেকেই মুকুল রায়কে দেখে থমকে যায়। তাদের অনেকের বক্তব্য ছিল ওখানে মুকুল রায়ের নিজেরই পায়ের তলায় মাঠি শক্ত নয়। বিজেপি ভোটের আগে সেই ধারণাটাই ভাঙতে চাইছে। মুকুলকে দিয়ে তারা তৃণমূলে ফের ফাটল ধরানোর চেষ্টা চালাবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

এমনিতেই বঙ্গ বিজেপির ভিতরের কোন্দল লাগাতার বাইরে এসেছে। পিকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়েছেন বহু বিজেপি নেতা। এবার কি তাহলে মুকুলকে দিয়ে নতুন খেলা শুরু করতে চলেছে বিজেপি। দেখার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে।

আরও পড়ুন : NCB’র জিজ্ঞাসাবাদে ‘ড্রাগ চ্যাটে’র কথা স্বীকার দীপিকার! বিস্ফোরক তথ্য দিলেন শ্রদ্ধা কাপুরও

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest