পরিযায়ী শ্রমিকরা নিদারুন কষ্টে আছেন, সরকারের বর্ষপূর্তির দিন খোলা চিঠিতে স্বীকার প্রধানমন্ত্রী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নয়াদিল্লি: পরিযায়ী শ্রমিকরা নিদারুণ দুর্দশার মধ্যে রয়েছেন। লকডাউনের এতদিন পেরিয়ে যাওয়ার পর সরকারের দ্বিতীয় দফার বর্ষপূর্তির দিন কার্যত স্বীকার করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

মোদী সরকারের দ্বিতীয় দফার এক বছর পূর্তিতে দেশবাসীকে খোলা চিঠি লিখলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ভারত জয়ের পথে এগোচ্ছে বলেই চিঠিতে বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী৷ একই সঙ্গে পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশার কথাও স্মরণ করলেন বর্ষপূর্তিতে৷

তিনি লিখেছেন, এমনিতে তিনি মানুষের মধ্যে থাকতেই পছন্দ করেন৷ কিন্তু করোনা ভাইরাস ও দেশজুড়ে লকডাউনের জেরে চিঠি লিখতে বাধ্য হলেন৷ প্রধানমন্ত্রীর কথায়, ‘কেন্দ্রের গত এক বছরে কিছু ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের জেরে দেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে৷ বহু চ্যালেঞ্জ, কঠিন পরিস্থিতি রয়েছে৷ তা সত্ত্বেও ভারত এগিয়ে চলেছে৷’

তিনি বললেন, “পরিযায়ী শ্রমিকরা খুবই কষ্টের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। ক্ষুদ্র শিল্পের কর্মী, কারিগর, হকার-সহ আমার দেশের একাংশের মানুষ খুব কষ্টের মধ্যে রয়েছেন৷।” তিনি বলেন, “দেশের মানুষের কষ্ট লঘু করত, সমস্যা সমাধানে আমরা এক জোট হয়ে কাজ করছি। আমরা দিনরাত এক করে কাজ করছি। আমার মধ্যে কিছু ঘাটতি থাকতে পারে, কিন্তু আমাদের দেশের কোনও ঘাটতি নেই৷ আমার আপনাদের উপর বিশ্বাস আছে, আপনাদের ক্ষমতা ও যোগ্যতা আমার চেয়ে অনেক বেশি৷’

আরও পড়ুন: মোদীর জয়ের ভবিষ্যতবাণী! করোনা উপসর্গে মৃত্যু ‘তারকা’ জ্যোতিষী বেজান দারুওয়ালার

মোদীর কথায়, “প্রত্যেক ভারতবাসীকেই গাইডলাইন মেনে চলা দরকার৷ মানুষ এখনও পর্যন্ত ধৈর্য রেখেছেন, পরেও রাখবেন৷ আমি সেটা বিশ্বাস করি।  ঠিক এই কারণেই ভারত আজ অন্য অনেক দেশের চেয়ে ভালো জায়গায় রয়েছে৷ আমরা জয়ের পথেই এগোচ্ছি৷ আমাদের সঙ্ঘবদ্ধ ভাবে কাজেই জয় আসবে৷”

করোনা ভাইরাস পরবর্তী যুগ প্রসঙ্গে মোদী বলেন, একটি প্রশ্ন গোটা বিশ্বে ঘুরছে, কী ভাবে এই আর্থিক বিপর্যয় থেকে ভারত-সহ বিশ্ব ঘুরে দাঁড়াবে? মোদী বলছেন, ‘করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে ভারত৷ আর্থিক ভাবে ঘুরে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রেও গোটা বিশ্বের কাছে উদাহরণ হতে চলেছে ভারত৷’ আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের কথা স্মরণ করিয়ে মোদির খোলা চিঠি, ‘আমাদের নিজেদের যোগ্যতা ও শক্তিতে এগিয়ে যেতে হবে৷ এটা আমাদের নিজেদের পথ৷ একটাই পথ, আত্মনির্ভর ভারত৷’

সম্প্রতি ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা সম্পর্কে মোদী বলেন, ‘এই উদ্যোগের উপকার পাবেন প্রতিটি ভারতবাসী৷ আমাদের কৃষক, শ্রমিক, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও স্টার্ট-আপ চালু করা যুব সম্প্রদায়৷’

বিরোধীদের প্রশ্ন, প্রধানমন্ত্রী এতদিন পর সরকারের বর্ষপূর্তির দিনই কেন বেছে নিলেন পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করার জন্য? আদৌ পরিযায়ী কিংবা দুঃস্থ মানুষগুলোর সমস্যা সমাধানে সরকার কী পদক্ষেপ করছে? তাঁদের জন্য কি কোনও আর্থিক সহাযতার ব্যবস্থা করেছে সরকার? 

আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় ‘ব্যর্থ’, অনুদান বন্ধের পর WHO-র সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ ট্রাম্পের

Gmail 3
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest