রক্ত সঞ্চালনে উন্নতি, ফুসফুসের চিকিৎসায় মিলছে সাড়া, এখনও গভীর কোমায় প্রণব

আগের চেয়ে শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের (Pranab Mukherjee)। তবে এখনও গভীর কোমায় আচ্ছন্ন তিনি। আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালে তরফে শনিবার একটি বিবৃতি দিয়ে এই কথা জানানো হয়েছে।বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা প্রতিনিয়ত তাঁকে নজরদারিতে রাখছেন।

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ফুসফুসে সংক্রমণের চিকিৎসা চলেছে। গভীর কোমায় আচ্ছন্ন তিনি। তবে তাঁর শরীরে রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া আপাতত যথাযথ রয়েছে বলে জানিয়েছে দিল্লি ক্যান্টনমেন্টের সেনা হাসপাতাল।হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে যে, প্রণববাবুর কিডনিজনিত সমস্যার আগের চেয়ে কিছুটা সুরাহা হয়েছে। এ ছাড়া তাঁর সামগ্রিক শারীরিক পরিস্থিতিও স্থিতিশীল। যদিও তিনি এখনও কোমাচ্ছন্ন অবস্থায় ভেন্টিলেটর সাপোর্টেই রয়েছেন।

গত ১০ অগস্ট থেকে দিল্লি ক্যান্টনেমেন্টের ভারতীয় সেনাবাহিনীর রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালে শারীরিক পরীক্ষায় ধরা পড়ে, প্রণববাবুর মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধেছে। সেই সঙ্গে তাঁর করোনাভাইরাস রিপোর্টও পজিটিভ আসে।

ওই দিনই জরুরি ভিত্তিতে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির শরীরে অস্ত্রোপচার করা হয়। অস্ত্রোপচার সফল হলেও তার পর থেকে তাঁর অবস্থা সংকটজনক হয়ে পড়ে। সেই থেকেই তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে।

এক সময় তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গুজবও ছড়ায়। পরে তাঁর পরিবারের তরফে আবেদন করা হয় যাতে কেউ কোনো গুজব না ছড়ায়। বাড়ির বাথরুমে পড়ে মাথায় চোট পান প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে যায়। একই সঙ্গে তাঁর শরীরে করোনা সংক্রমণের প্রমান মেলে। মস্তিষ্কে অপারেশন সফল হলেও। চিকিৎসায় সেইভাবে সাড়া দেননি তিনি। এখনও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ক্যান্টনমেন্ট হাসপাতালের চিকিৎসকরা।