রোহিঙ্গাদের এখনই দেশে ফেরত পাঠান যাবে না: সুপ্রিম কোর্ট

এমনিতেই মিয়ানমারের হিংসায় নাম জড়িয়েছে দেশের কোম্পানি আদানির।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

জম্মুতে আটক রোহিঙ্গা শরণার্থীদের এখনই ফের পাঠান যাবে না। বিধিবদ্ধ প্রক্রিয়া ছাড়া তাদের কোনওমতে দেশ থেকে বের করে দেওয়া যাবে না। বৃহস্পতিবার এমনটাই জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।বৃহস্পতিবার শীর্ষকোর্ট বলে বিধিবদ্ধ প্রক্রিয়া ছাড়া কোনও রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে পাঠান যাবে না।

প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদের নেতৃত্বাধীন বেঁচে ছিল মামলা। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে পাঠানোর জন্য আদালতের কাছে আবেদন করেছিল কেন্দ্র।তাতেই সুপ্রিম কোর্ট এই রায় দেয়।এর আগে মোদী সরকার নিজেই বলেছিল যে এই দেশ কখনও অবৈধ শরণার্থীদের রাজধানী হতে পারে না।

আরও পড়ুন: Puducherry Election 2021: দক্ষিণে পদ্ম ফোটাতে ভরসা সেই ব্র্যান্ড মোদী!

শুনানির সময় আইনজীবী প্রশান্ত কিশোর বলেন, রোহিঙ্গা শিশুদের পর্যন্ত খুন করা হয়েছে। তাদের যৌন নিগ্রহ করা হয়েছে। আর সেটা করেছে মিয়ানমারের সেনা। এই সেনারা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন মান্য করতে ব্যর্থ হয়েছে।
সেনার হামলার কারণে বহু রোহিঙ্গা তাদের মাতৃভূমি ছাড়তে বাধ্য হয়। তারা প্রাণের দায়ে রাখাইন প্রদেশ থেকে আশ্রয় নেয় ভারত ও প্রতিবেশি বাংলাদেশে।

এমনিতেই মিয়ানমারের হিংসায় নাম জড়িয়েছে দেশের কোম্পানি আদানির। এই হিংসায় আদানির মদত না থাকলেও তাঁর দেওয়া তথ্যে অসঙ্গতি মিলেছে। মিয়ানমারের সেনা নিয়ন্ত্রণাধীন ব্যবসায়িক গোষ্ঠীতে আদনীতে যুক্ত রয়েছে। সেই কোম্পানিতে টাকাও ঢেলেছে। অথচ তারা তা অস্বীকার করেছে। রোহিঙ্গাদের ওপর নির্মম অত্যাচার চালানোর সময় রাষ্ট্রসঙ্গ বলেছিল কেউ যেন মিয়ানমারের সেনার সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক না রাখে। কিন্তু কার্যত সে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেছে আদানি। এমনটাই এবিসি নিউজের খবর।

আরও পড়ুন: সেই পুরোনো ছক, মন্দির খুঁজতে জ্ঞানবাপী মসজিদ চত্বরে প্রত্নতাত্ত্বিক পরীক্ষার সিদ্ধান্ত আদালতের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest