সন্তানকে জল খাওয়াতে গিয়ে RPF-এর হাতে বেধড়ক মার খেলেন মানসিক ভারসাম্যহীন মা, ফের ‘অমানবিক’ যোগীরাজ্য !

আগ্রা: যোগী আদিত্যনাথের নেতৃত্বে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ‘কাজ’ নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাল সে রাজ্যে কর্মরত আরপিএফ’ও।

রেল স্টেশনের কলে নিজের সন্তানকে জল খাওয়াতে নিয়ে এসেছিলেন মানসিক ভারসাম্যহীন এক মা। সেই দেখেই বেজায় ক্ষেপে উঠলেন এক আরপিএফ কনস্টেবল। সেই দৃশ্য এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

জানা গিয়েছে, ঘটনাটি আগ্রার কাছে রাজা কি মান্ডি স্টেশনের ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে ঘটেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সেখানেই নিজের সন্তানকে জল খাওয়াতে আনেন মানসিক ভারসাম্যহীন এক মহিলা। মহিলা কেন ঘুরে বেড়াচ্ছেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ওই মহিলাকে লাঠি দিয়ে মারতে শুরু করেন এক আরপিএফ কনস্টেবল। শুধু মারধরই নয়, সমানতালে চলতে থাকে গালিগালাজ। ঘটনার পর শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্যজুড়ে। যোগী রাজ্যে বারবার পুলিশের কেন এমন অমানবিক মুখ দেখা দিচ্ছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিরোধীরা। বাধ্য হয়ে অন্তবর্তী তদন্তের নির্দশ দিয়েছে আরপিএফ।

আরও পড়ুন: করোনার থাবা এবার রুজি-রুটিতে, চাকরি গেল Zomato-র ৫০০ কর্মীর

দিনকয়েক আগেই দেখা গিয়েছিল, উত্তরপ্রদেশের ইটাওয়া জেলায় মানসিক ভারসাম্যহীন এক যুবককে ব্যাপক লাঠিপেটা করছে ২ পুলিশকর্মী। হাতজোড় করে প্রাণভিক্ষা চাইছেন সেই যুবক। বারবার ডাকছেন ‘প্রধান জি’কে। কিন্তু তা পাত্তাও দিচ্ছেন না পুলিশকর্মীরা। লাঠির পর বুট দিয়ে মুখে লাথি মারা হচ্ছে। স্থানীয়দের অনেকেই বিষয়টি দেখেও সামনে গিয়ে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেননি।

ভিডিয়োটি সামনে আসতেই উত্তরপ্রদেশজুড়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। অভিযুক্ত পুলিশকর্মীদের শাস্তির দাবি তোলে বিরোধীরা। চাপের মুখে পড়ে অবশ্য দুই পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়। তদন্তও শুরু হয়। কিন্তু একইরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েই চলেছে উত্তরপ্রদেশে।

আরও পড়ুন: যাদবপুরে স্নাতক-স্নাতকোত্তর স্তরের শেষ সেমেস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষা অনলাইনেই

Gmail 2