Fake Alart: উত্তরাখণ্ডে বিধ্বংসী দাবানলের খবর পুরোপুরি মিথ্যে, জানাল রাজ্য বনদপ্তর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দেরাদুন: পূর্ব ভারতে আমফানের তাণ্ডবের পর উত্তর ও মধ্য ভারত জুড়ে পঙ্গপালের দাপাদাপি। একের পর এক প্রাকৃতিক বির্পযয়ে নাভিশ্বাস ওঠার অবস্থা দেশবাসীর। এর মাঝেই কয়েকদিন হল সোশ্যাল মিডিয়ায় কয়েকটি ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল। দাবি করা হচ্ছিল দাবানলের বিভৎস আগুনে জ্বলছে দেবভূমি উত্তরাখণ্ডের বিস্তীর্ণ বনরাশি। তবে এই খবর পুরোপুরি ভ্রান্ত বলেই দাবি করা হচ্ছে উত্তরাখণ্ড সরকারের পক্ষ থেকে।

টানা চারদিন ধরে আরও ৪৬টি দাবানলে দাউ দাউ করে জ্বলছে উত্তরাখণ্ডের বিস্তৃণ সবুজ বনাঞ্চল। বন দফতরের ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১.৩২ লক্ষ টাকা। দাবানলের করাল গ্রাসে ভস্মীভূত বনাঞ্চলের আনুমানিক ৭১ হেক্টরের জমি। এমন খবরই দেখা গিয়েছিল বিভিন্ন সংবাদপত্র এবং নিউজ পোর্টালে। কিন্তু এই খবরকে ভুয়ো বলে উড়িয়ে দিলেন স্বয়ং উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত। তিনি দাবি করেন উত্তরাখণ্ডের পুরনো দাবানলের ছবি নতুন করে শেয়ার করা হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, যার থেকে ছড়াচ্ছে বিভ্রান্তি।

আরও পড়ুন: লকডাউন তুলতে এখনই রাজি নয় রাজ্য, চলবে না লোকাল ট্রেনও! দিল্লিকে জানাল নবান্ন

উত্তরাখণ্ডের ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের একটি পোস্ট রিট্যুইট করে তিনি লেখেন, গত বছরের তুলনায় এবছর দাবানলের ঘটনা অনেকটাই কম রাজ্যে। IFSA-র গ্রাফিক অনুযায়ী ২৫ মে পর্যন্ত ১০০ হেক্টরের কম অঞ্চলে দাবানল দেখা গিয়েছে। সেই তুলনায় গতবছর আগুনে ভষ্মীভূত হয়ে যায় প্রায় ১৬০০ হেক্টর জঙ্গল। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন যে সব ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত হচ্ছে তা ২০১৬ এবং ২০১৯ সালের দাবানলের। তার মধ্যে আবার বেশ কিছু ছবি চিলে এবং চিনের। তিনি আরও বলেন, ‘আমি সবার কাছে অনুরোধ করছি এমন খবর ও ছবিতে বিশ্বাস করবে না। গত কাল পর্যন্ত রাজ্যে যে দাবানলের ঘটনা ঘটেছে তা গত বছরের তুলনায় বহু গুণ কম।’

আরও পড়ুন: করোনা-আমফানের হানায় বারোটা বাজল শুভ জামাই ষষ্ঠীর,দেখে নিন ‘ফানি’ শুভেচ্ছা

Gmail 3

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest