অক্সিজেন সরবরাহ আটকালে ফাঁসি, বেনজির হুঁশিয়ারি দিল্লি হাইকোর্টের

কেন্দ্রের কাছে প্রতিশ্রুতি মতো ৪৮০ মেট্রিক টন অক্সিজেন দাবি করে দিল্লি।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দেশ জুড়ে রেকর্ড হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। আর সেই সঙ্গে দিকে দিকে অক্সিজেনের হাহাকারের যে ছবি উঠে আসছে, তা নিঃসন্দেহে চিন্তায় রেখেছে চিকিৎসক মহলকে। শ্বাসবায়ুর অভাবে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি রাজধানীতে। এমন অবস্থায় অক্সিজেন সমস্যা মেটাতে এবার কড়া হচ্ছে দিল্লি হাইকোর্ট।

কোভিড রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহে গাফিলতি দেখলে কেন্দ্র, রাজ্য বা স্থানীয় স্তরের কোনও আমলাকেই ছেড়ে কথা বলা হবে না বলে জানিয়ে দিল দিল্লি হাই কোর্ট। প্রয়োজনে তাঁকে ফাঁসিতে ঝোলানো হবে বলেও শনিবার হুঁশিয়ারি দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি কেন্দ্রকে স্পষ্ট করে জানাতে বলা হয়, সরকারের দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কবে দিল্লিতে ৪৮০ মেট্রিক টন অক্সিজেন পৌঁছবে।

দেশে কোভিড সংক্রমণের দ্বিতীয় তরঙ্গকে ‘সুনামি’ আখ্যা দিয়ে শনিবার দিল্লি হাই কোর্ট একটি মামলার পর্যবেক্ষণে জানায়, হাসপাতালগুলিতে অক্সিজেন সরবরাহ পর্যাপ্ত পরিমাণে হচ্ছে না। সেই সরবরাহে ব্যাঘাত ঘটানো হলে কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকারি কর্মী অথবা স্থানীয় প্রশাসনের কোনও কর্তাব্যক্তিকেই ছে়ড়ে কথা বলা হবে না।

আরও পড়ুন: গর্ভে সন্তান, রোজা রেখেই কোভিড রোগীদের সেবা করছেন আয়েশা

অক্সিজেন সরবরাহ সংক্রান্ত একটি মামলায় সমস্যার দায় দিল্লি সরকারের ওপর বর্তায় কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সরকার জানায়, সব রাজ্য অক্সিজেনের বন্দোবস্ত নিজেরাই করছে। কেন্দ্র স্রেফ তাদের সাহায্য করছে। কিন্তু দিল্লিতে সবটাই কেন্দ্রের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। দিল্লি আধিকারিকদের তাঁদের যথাযথ কাজ করার দাবি করে কেন্দ্র। দিল্লি সরকারের আইনজীবী রাহুল মেহরার অভিযোগের উত্তর দিতে গিয়ে কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, “আমি আমার দায়িত্ব জানি। আমি অনেক কিছুই জানি কিন্তু বলছি না। কাঁদুনে বাচ্চার মতো না করে চেষ্টা করুন। আমরা নির্বাচন লড়ছি না।” পাল্টা কেন্দ্রের কাছে প্রতিশ্রুতি মতো ৪৮০ মেট্রিক টন অক্সিজেন দাবি করে দিল্লি।

এই পরিস্থিতিতে দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্রে কাছে স্পষ্ট জানতে চেয়েছে ৪৮০ মেট্রিক টন অক্সিজেন দিল্লিতে কবে পৌঁছবে! আর এটাও বুঝিয়ে দিয়েছে, যে কোনও ব্যক্তি অক্সিজেন সরবরাহে বাধা দিলেই তাঁকে কঠোর শাস্তি দেবে হাইকোর্ট। সেখানে কোনও আমলাকেও রেয়াত করা হবে না।

আরও পড়ুন: ‘জাতীয় জরুরি অবস্থা’, কোভিড নিয়ে কেন্দ্রকে শীর্ষ কোর্টের ‘কড়া’ নোটিশ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest