নেশায় বুঁদ বলিউড! মাদক দোষে অভিযুক্ত বহু তারকাই …

বলিউড (bollywood) ও মাদক (drugs), শব্দদুটির মধ‍্যে সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। এমন বহু জনপ্রিয় তারকা রয়েছেন যারা মাদকের নেশায় কেরিয়ার পর্যন্ত বিসর্জন দিতে বসেছিলেন। এদের মধ‍্যে কেউ কেউ আর কোনওদিনই মাদকের অন্ধকার জগৎ থেকে বেরিয়ে আসতে পারেননি। আবার অনেকে মনের জোরে কাটিয়ে উঠেছেন নেশার অমোঘ টান।

জেনে নিন এমনই কয়েকজন জনপ্রিয় তারকার কথা যারা একসময় মাদকের নেশার চুর হয়ে থাকতেন।

সঞ্জয় দত্ত– পুরোপুরি নেশার কবলে চলে গিয়েছিলেন সঞ্জয়। ১৯৮১ সালে ‘রকি’ ছবির হাত ধরে বলিউডে পা রাখেন তিনি। প্রথম ছবিতেই নিজের অভিনয় দিয়ে বাজিমাত করেছিলেন সঞ্জয়। এরপর বেশ কিছু ছবির প্রস্তাব আসতে থাকে তাঁর কাছে। কিন্তু ড্রাগসের নেশার কারনে বহু ভাল ছবি হাতছাড়া হয়ে যায় তাঁর। এমনকি জ‍্যাকি শ্রফ অভিনীত ‘হিরো’ ছবিতে প্রথমে সঞ্জয়েরই অভিনয় করার কথা ছিল। কিন্তু নেশার কারনে তা আর হয়ে ওঠেনি। আমেরিকায় চিকিৎসার সময় তাঁকে মাদক দ্রব‍্যের একটি তালিকা দেওয়া হয়েছিল। সেই তালিকায় সবকটি নামে টিক দিয়েছিলেন অভিনেতা। অর্থাৎ তিনি সব মাদকই গ্রহণ করেছিলেন। তবে চিকিৎসার পর তিনি দুরন্ত কামব‍্যাক করেন ছবিতে।

ইয়ো ইয়ো হানি সিং– বলিউডের জনপ্রিয় র‍্যাপার হানি সিং কয়েকদিনের মধ‍্যেই সাফল‍্যের চূড়ায় উঠে গিয়েছিলেন। সেই সাফল‍্যে চোখে ধাঁধা লেগে যায় গায়কের। ড্রাগস ও মদের নেশার ডুবে যান হানি সিং। বাড়তে থাকে কেরিয়ারের সঙ্গে দূরত্ব। মাদকের নেশা ছাড়াতে রিহ‍্যাবেও যেতে হয়েছিল হানি সিংকে। এখন তিনি নেশামুক্ত হয়ে ফের কেরিয়ারে মনোনিবেশ করেছেন।

c3bbcfcc 9ab2 11ea 871b 70b2176894d0

মনীষা কৈরালা– কেরিয়ারের শীর্ষে থাকার সময় মাদকের নেশায় জড়িয়ে পড়েন মনীষা। জানা যায়, স্বামী সম্রাট বহেলের সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছেদ হওয়াতেই মাদকে ডুবে যান অভিনেত্রী। তবে তিনি নিজের মনের জোরে সেই নেশা থেকে বেরিয়ে এসেছেন। সেই সঙ্গে জয় করেছেন ক‍্যানসারও।

রণবীর কাপুর– স্কুল জীবন থেকেই নাকি মাদক সেবনের অভ্যাস রণবীর কপূরের। কঙ্গনাও অভিযোগ এনেছেন তাঁর বিরুদ্ধে। বলিউডের চকলেট বয়কে নাকি রিহ্যাবেও যেতে হয়েছিল। এমনকি গাঁজার নেশার কথা প্রকাশ্যে স্বীকারও করেন রণবীর।

সুজান খান– হৃত্বিক রোশনের প্রাক্তন স্ত্রী সুজান খানের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ রয়েছে। হৃতিকের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হওয়ার পর নাকি চরম অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন সুজান। সুজান নাকি ড্রাগের পরিমাণ বাড়িয়ে দেন তখন।

সুরজ পাঞ্চোলি– আদিত্য পাঞ্চোলির ছেলে সুরজ পাঞ্চোলি চরম অবসাদে ভুগছিলেন। প্রেমিকা জিয়া খানকে হত্যার অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। গাঁজা, কোকেন, হেরোইন এ সবই নাকি নিয়েছিলেন তখন।

আরও পড়ুন: স্বাধীনতা যুদ্ধের পটভূমিকায় প্রেম কাহিনি! আনলক হতেই নয়া চমক পাভেলের, সঙ্গী এনা

গৌরি খান-বলিউড বাদশা কিং খান শাহরুখের স্ত্রী গৌরি। বার্লিন বিমানবন্দরে নাকি ধরা পড়েছিলেন সঙ্গে মারিজুয়ানা ছিল বলে।

ফারদিন খান– ফারদিন নাকি কোকেন থেকে হেরোইন সব রকম মাদকেই আসক্ত হয়ে পড়েছিলেন। এই আসক্তি ছাড়ার চেষ্টাও করেছিলেন তিনি। মাদক থাকার অভিযোগে তিনি গ্রেফতারও হয়েছিলেন।

প্রতীক বব্বর– রাজ বব্বর এবং স্মিতা পাটিলের সন্তান প্রতীক বব্বর প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন মাদক সেবনের কথা। অতিরিক্ত মাদক নিয়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালেও যেতে হয়েছিল তাঁকে।

big 420444 1466239935

মমতা কুলকার্নি– মমতা এবং তাঁর স্বামী ভিকি দু’জনের বিরুদ্ধেই মাদক রাখার অভিযোগ ছিল। তাঁদের নাম জড়িয়েছিল মাদক পাচারের সঙ্গেও। গ্রেফতারও হয়েছিলেন মমতা। মমতার বলিউড কেরিয়ার নষ্টের মূল কারণও নাকি এটাই।

পারভীন ববি– ড্রাগ ওভারডোজ বা অতিরিক্ত মাদক সেবনের ফলেই নাকি প্রাণ হারান বলিউডের গ্ল্যামারাস অভিনেতা পারভীন ববি। একাকিত্বের কারণেই নাকি বেছে নিয়েছিলেন মাদককে।

রবিনা ট্যান্ডন – রবিনা বললেই মনে পড়ে ‘টিপ টিপ বর্ষা পানি’। ‘খিলাড়ি’ নায়িকার সঙ্গে এক সময় অক্ষয় কুমারের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। অক্ষয়ের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন রবিনা। তখন নাকি গাঁজা ও অন্য মাদক সেবন করতেন।

কপিল শর্মা– বলিউডের কেরিয়ারে সঙ্কটের মুখোমুখি হয়েছিলেন কপিল শর্মা। বিখ্যাত এই কৌতুক অভিনেতাও অবসাদ ভুলতে নাকি মাদকের শরণাপন্ন হয়েছিলেন। নিয়মিত গাঁজা খেতেন কপিল, বলিউডের নানা পত্র-পত্রিকায় এমনই প্রকাশিত হয়েছিল।

বিজয় রাজ– দুবাই বিমানবন্দরে বলিউডের আরও এক জন কৌতুক অভিনেতা মাদক রাখার কারণে গ্রেফতার হন। তিনি হলেন বিজয় রাজ। ভ্রমণের সময় তাঁর সঙ্গে নাকি গাঁজা ছিল।

মীনা কুমারী– বিচ্ছেদের পর অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন বলিউডের অন্যতম সেরা কিংবদন্তি অভিনেতা মীনা কুমারী। অভিনয়েও প্রভাব পড়েছিল সেই অভ্যাসের। ভালবাসা ভুলতে আকণ্ঠ মদ্যপান। জনপ্রিয়তার শিখরে থাকতে থাকতেই মাত্র ৩৯-এ ফুরিয়ে যাওয়া ট্র্যাজিক নায়িকা মীনা কুমারীও নাকি মাদক সেবনে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন।

আরও পড়ুন: হাত বাড়ালেই বন্ধু! এবার থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশুর চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন দেব