আজ ফোকাস-এ

লকডাউনের জের,ভাঙা হল ৬ কোটি টাকা দিয়ে তৈরি গাঙ্গুবাঈ-এর সেট

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

ওয়েব ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের কারণে পুরোবিশ্বে সিনেমার শুটিং পিছিয়েছে। যার ফলে শুধুমাত্র বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেই কয়েকশ’ কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে। অন্যান্য ছবির মতোই পিছিয়ে সঞ্জয়লীলা বানশালির গিয়েছে ‘গাঙ্গুবাঈ কাঠিয়াওয়াডি’র শুটিং। যে কারণে কয়েক কোটি টাকা খরচে তৈরি ছবির সেট ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ছবির পরিচালক-প্রযোজক সঞ্জয়লীলা বানশালি।

জানা গেছে, করোনা নিয়ে পরিস্থিতি যেদিকে এগুচ্ছে তাতে ফের কবে ‘গাঙ্গুবাঈ কাঠিয়াওয়াড়ি’ ছবির শুটিং শুরু হবে তা কারোরই জানা নেই। এদিকে ফিল্ম সিটিতে প্রায় ৬ কোটি টাকা খরচ করে ‘গাঙ্গুবাঈ কাঠিয়াওয়াড়ির জন্য সেট বানিয়েছিলেন বানশালি। তবে শুটিং যেহেতু অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে গিয়েছে, তাই এতদিন সেটের জন্য ভাড়া বহন করাটা অকারণ খরচ সাপেক্ষ হয়ে যাচ্ছে বলেই মনে করছেন প্রযোজক বানশালি। সেটের জন্য যে পরিমাণ ভাড়া গুণতে হচ্ছে, তার থেকে পরে ফের সেট বানিয়ে নেওয়ার খরচ তুলনামূলক কম হবে বলে মনে করছেন পরিচালক। সেই কারণে সেট ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: করোনা যুদ্ধে শামিল রানু মণ্ডলও, লকডাউনে দুস্থদের মধ্যে বিলি করলেন রেশন

এ প্রসঙ্গে আলিয়া ভাট বলেন, ‘ঠিক কবে স্বাভাবিক হবে সবকিছু আমরা জানি না। তাই অনিশ্চয়তার কারণে সেট ভাঙা হয়েছে।’ জানা যাচ্ছে শ্যুটিং সেটটি দেখভালের জন্য গত মার্চ পর্যন্ত টাকাও দিয়েছিলেন সঞ্জয়লীলা বনশালি, তবে লকডাউনের মেয়াদ বেড়ে যাওয়ায় অবশেষে সেট ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ছবির পরিচালক প্রযোজক সঞ্জয়লীলা বনশালি।

প্রসঙ্গত, বনশালির এই ছবিতে গাঙ্গুবাঈ-এর ভূমিকায় দেখা যাবে আলিয়া ভাটকে। এর আগে গাঙ্গুবাঈ-এর বেশে আলিয়া ভাটের লুকও প্রকাশ্যে আনা হয়েছিল। আর তা যথেষ্ট সারা ফেলেছিল।আপাতত আলিয়ার গাঙ্গুবাঈ সাজা স্থগিত। ফের কবে ছবির শ্যুটিং শুরু হবে, তা ভবিষ্যতই বলবে।

আরও পড়ুন: লকডাউন রোম্যান্স! শাড়িতে আরও বেশি মোহময়ী হয়ে উঠলেন প্রিয়াঙ্কা…

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

সম্পর্কিত পোস্ট