২০২২ সাল থেকে আইপিএল ১০ দলের, সিলমোহর বোর্ডের বার্ষিক সভায়

অনেকদিন ধরেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) অন্দরে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল। অবশেষে বার্ষিক সাধারণ সভায় সেই প্রস্তাবে চূড়ান্ত সিলমোহর পড়ল। ২০২২ সাল থেকে আইপিএল হতে চলেছে ১০ দলের।

এখনও পর্যন্ত একবারও আইপিএল টুর্নামেন্ট দশটি দলে খেলা হয়নি। যদিও ২০১১, ২০১২ এবং ২০১৩ এই তিন বছর আইপিএল টুর্নামেন্টে সর্বাধিক ন’টি দল অংশগ্রহণ করেছিল। জানা গেছে, পরের বছর আইপিএল টুর্নামেন্টে আটটি দলই দেখা যাবে। ২০২২ মরশুম শুরু করার আগে একটি নিলামের আয়োজন করা হবে। সেখানেই বাকি দুটো দলকে বেছে নেওয়া হবে। কোন কোন শহর থেকে এই দুটি দল নেওয়া হবে, সেটা অবশ্য বোর্ড এখনও ঘোষণা করেনি।

আরও পড়ুন: ৬৪৩ গোল করে পেলেকে ছুঁলেন মেসি, মন ছোঁয়া অভিনন্দন বার্তা ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তির

এদিকে, এদিন বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লা (Rajeev Shukla) সর্বসম্মতিক্রমে বোর্ডের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন। মহিম বর্মার পদত্যাগের পর এই আসনটি ফাঁকাই পড়েছিল। এদিনের বৈঠকে ঘরোয়া ক্রিকেটের জন্য একাধিক বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই। সুত্রের খবর, মহামারীর আবহে ঘরোয়া মরশুম খেলা না হওয়ায় ক্রিকেটররা যে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন, তা পুরণ করে দেবে বোর্ড। শুধু তাই নয়, জানুয়ারি থেকে পুরোদমে ঘরোয়া মরশুম শুরু করারও পরিকল্পনা রয়েছে বিসিসিআইয়ের।

অন্যান্য বড় সিদ্ধান্তের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত করার যে প্রস্তাব আইসিসি (ICC)দিয়েছে, সেই প্রস্তাবকেও সমর্থন করেছে বিসিসিআই।যদিও এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আগামী বছর এক বিশেষ সভায় নেওয়া হবে। সেই সঙ্গে আইসিসির ডিরেক্টর হিসেবে খোদ প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে বেছে নিয়েছে বিসিসিআই। সৌরভের অনুপস্থিতিতে আইসিসির বৈঠকগুলিতে হাজির থাকবেন সচিব জয় শাহ।

আরও পড়ুন: কোটলায় বসছে অরুণ জেটলির মূর্তি, ক্ষোভে স্টেডিয়াম থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিতে বললেন বেদি, করলেন পদত্যাগ