ENG vs PAK: কোহলিকে পিছনে ফেলে নয়া রেকর্ড গড়লেন পাক অধিনায়ক বাবর আজম

বৃষ্টির জন্য ভেস্তে গিয়েছিল প্রথম টি-টোয়েন্টি। তিন ম্যাচের সিরিজে রবিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের কাছে পাঁচ উইকেটে পরাস্ত হয় পাকিস্তান। সিরিজে ১-০ এগিয়ে যায় হোম ফেভারিটরা। স্বাভাবিকভাবে টেস্টের পর টি-টোয়েন্টিতেও মুখ থুবড়ে পড়ায় পাক শিবিরে হতাশা। তবে রবিবার বাইশ গজে ব্যাট হাতে নজর কাড়লেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। দুরন্ত ব্যাটিং করে ছুঁয়ে ফেললেন বিরাট কোহলিকে!

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চলতি সিরিজের দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে হাফ-সেঞ্চুরি করার পথে বাবর ১৫০০ রানের মাইলস্টোন টপকে যান। তিনি মোট ৩৯টি ইনিংসে এমন কৃতিত্ব অর্জন করেন। বিরাট কোহলি এবং অ্যারন ফিঞ্চও আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে ১৫০০ রানের গণ্ডি টপকেছেন ৩৯টি করে ইনিংসেই। অর্থাৎ, এই নিরিখে তিন তারকাই এখন বিশ্বরেকর্ডের অধিকারী।

আরও পড়ুন: IPL 2020: কাটা হল কেক, বিরুষ্কাকে খুশির মুহূর্ত উপহার RCB-র

এই মাইলফলক ছুঁতে বাবরের প্রয়োজন ছিল ২৯ রান। তিনি শেষমেশ ৪৪ বলে ৫৬ রান করে আউট হন। বাবর অবশ্য অন্তত ৫০০ রান করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ব্যাটিং গড়ের নিরিখে বিরাট কোহলিকে পিছনে ফেলে দেন। এই ইনিংসের পর বাবরের ব্যাটিং গড় দাঁড়ায় ৫০.৯০, যা আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে সর্বোচ্চ। কোহলির ব্যাটিং গড় ৫০.৮০, যা এতদিন সর্বাধিক ছিল। যদিও বাবরের (৪০) তুলনায় দ্বিগুনেরও বেশি ম্যাচ খেলেছেন কোহলি (৮২)।

টি-২০ ক্রিকেটে সবথেকে বেশি রানের রেকর্ড রয়েছে বিরাট কোহলির দখলে। তিনি ৮২ ম্যাচে ২৭৯৪ রান সংগ্রহ করেছেন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন রোহিত শর্মা। ১০৮ ম্যাচে তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ২৭৭৩ রান। তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছেন যথাক্রমে মার্টিন গাপ্তিল, শোয়েব মালিক ও ডেভিড ওয়ার্নার। বাবর আজম ৪০ ম্যাচে সংগ্রহ করেছেন ১৫২৭ রান। মহম্মদ হাফিজ এই ম্যাচেই আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে ২ হাজার রানের মাইলস্টোন টপকে যান। ৯৩ ম্যাচে তাঁর সংগ্রহ ২০৬১ রান।

আরও পড়ুন: IPL2020: সন্তানদের বিপদে ফেলতে চাইনা, দেশে ফিরে জানালেন রায়না