জিতলেন, কিন্তু ফরাসি ওপেনে মন জয় করতে পারলেন না রজার ফেডেরার। নিজেও সেটা বুঝতে পেরে জানিয়ে দিলেন, প্রতিযোগিতায় আর নামবেন কি না সে ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন।

শনিবার রাতে জার্মানির ডমিনিক কোয়েপফারকে ৭-৬ (৭-৫), ৬-৭ (৩-৭), ৭-৬ (৭-৪), ৭-৫ গেমে হারিয়ে চতুর্থ রাউন্ডে উঠে গিয়েছেন ফেডেরার। ম্যাচের ফল দেখেই অনুমান করা যায় লড়াই কতটা হাড্ডাহাড্ডি হয়েছে। এর ফলে গ্র্যান্ড স্ল্যামে ৪২৪ ম্যাচের ইতিহাসে এই প্রথম ফেডেরারের কোনও ম্যাচে প্রথম তিনটি সেট টাইব্রেকারে গেল।

আরও পড়ুন: লর্ডসে ফিরছে টেস্ট ক্রিকেট, টিভিতে ও মোবাইলে কবে, কোথায়, কখন দেখবেন ম্যাচ?

ফেডেরারকে সেয়ানে সেয়ানে টক্কর দেন বাঁ-হাতি কোয়েপফার। ম্যাচে নিজের স্বাভাবিক ছন্দে না দেখালেও বর্তমান সময়ের ধারা বজায় রেখেই অবশেষে জয় ছিনিয়ে নেন রজার। ৩৯ বছর বয়সী টেনিস কিংবদন্তী হাঁটুর চোটের কারণে গত ১৭ মাসে গুটিকয়েক ম্যাচ খেললেও আবারও একবার নিজের অসাধারণ ফিটনেস, হার না মানা নাছোড় মনোভাব ও জেতার খিদেরই পরিচয় দিলেন এই ম্যাচে। ফেডেরারে জয়ে উচ্ছ্বসিত অ্যান্ডি মারেও।

নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে ব্রিটিশ তারকা লেখেন, ‘এই ম্যাচের ফলাফল নিয়ে আমি বিন্দুমাত্র চিন্তিত নই। শুধুমাত্র ৩৯ বছরের উত্তেজিত রজার ফেডেরারকে দুইবার হাঁটুর অস্ত্রোপ্রচারের পর ১২.৩০ টার সময় ফাঁকা স্টেডিয়ামে নিজের সেরাটা দিতে দেখাই আমাকে উদ্বুদ্ধ করে। সবসময় তুমি যা ভালবাসো সেটাই করা উচিত।’

ম্যাচের পর ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক ফেডেরার বললেন, “জানি না আর খেলতে পারব কিনা। খেলা চালিয়ে যাওয়া নিয়ে আমাকে একটা সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। হাঁটুর উপর চাপ দেওয়া কি খুব ঝুঁকিপূর্ণ? এখন কি বিশ্রাম নিলেই ভাল হয়?”গত বছর দু’বার হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছে ফেডেরারের। এ মরসুমে নামার আগে বারবার জানিয়েছেন, ঘাসের কোর্টে জেতাই তাঁর প্রধান লক্ষ্য। নবম উইম্বলডন জেতার লক্ষ্যে নামবেন তিনি। তার আগে প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা খেলবেন হ্যালে।

আরও পড়ুন: বিশ্বের সর্বকালের দ্বিতীয় দ্রুততম মহিলা হলেন জামাইকান স্প্রিন্টার শেলি-অ্যান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *