KXIP vs RR: রাজস্থানের মরুঝড়ে পাঁচ ম্যাচ পর থেমে গেল পঞ্জাব, বাড়লো নাইটদের প্লে-অফের আশা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

টানা পাঁচ ম্যাচে জয়। আত্মবিশ্বাসের সপ্তম স্বর্গে থেকেই আজ রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে খেলতে নেমেছিল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। কিন্তু, সেই বিজয়রথ অবশেষে থেমে গেল। আজ রাজস্থানের কাছে সাত উইকেটে পরাস্ত হল রাহুল অ্যান্ড কোম্পানি। আজ মাত্র ১ রানের জন্য নিজের সেঞ্চুরি মিস করলেন ক্রিস গেইল। তবে আজ পরাস্ত হলেও, পঞ্জাবের প্লে-অফে যাওয়ার আশা এখনও ক্ষীণ টিকে আছে।

এদিন টসে জিতে ফিল্ডিং নেন স্টিভ স্মিথ। ২০ ওভারে ১৮৫-৪ করে পঞ্জাব। ৬৩ বলে ৯৯ রান করে বোল্ড আউট হন ক্রিস গেইল। ৪১ বলে ৪৬ করেন কেএল রাহুল। ১০ বলে ২২ করেন নিকোলাস পুরান। রাজস্থানের হয়ে স্টোকস দুই উইকেট নেন ৩২ রানে। ২৬ রান দিয়ে দুই উইকেট নেন আর্চার। প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে ৪৬ রান ব্যয় করেন আর্চার।

চেজ করতে নেমে প্রথমেই স্টোকস রাজস্থানকে খেলায় এগিয়ে দেন। ২৬ বলে ৫০ করেন তিনি। অন্যদিকে উথাপ্পা ঠুকছিলেন। এই সময় খেলায় ফেরার সুযোগ ছিল পঞ্জাবের। কিন্তু নেট রানরেটকে নিয়ন্ত্রণে রাখেন স্যামসন। ২৫ বলে ৪৮ করেন তিনি। কিন্তু স্যামসন রান আউট হওয়ার পর খেলার রাশ ধরেন স্মিথ, যিনি এতদিন রান পাননি। স্মিথ (৩১) ও বাটলার (২২) অপরাজিত থেকে সহজেই সাত উইকেটে রাজস্থানকে জেতান। পঞ্জাবের হয়ে এদিন বোলাররা একেবারেই ছন্দ পাননি। একটি করে উইকেট পান মুরুগ্গান অশ্বিন ও ক্রিস জর্ডন। এই ম্যাচের জয়ের পর ১২ পয়েন্টে থাকল রাজস্থান রয়্যালস, কলকাতা নাইট রাইডার্স ও কিংস ইলেভেন পঞ্জাব।

আরও পড়ুন: IPL 2020: এখন সম্ভব! কোন অঙ্কে প্লে-অফে যেতে পারবে নাইট রাইডার্স, জেনে নিন

রাজস্থানের সঙ্গে এরপর ম্যাচ নাইট রাইডার্সের। সেই ম্যাচটি যে জিতবে তাদের প্লে-অফে যাওয়ার সম্ভাবনা খুব প্রবল। অন্যদিকে কিংস ইলেভেনের সঙ্গে ম্যাচ চেন্নাইয়ের। কিংসরা জিতলে তারাও যাবে ১৪ পয়েন্টে। অন্যদিকে নাইট রাইডার্স বনাম রাজস্থান ম্যাচের জয়ীও থাকবে ১৪ পয়েন্টে। সেখানে আসবে নেট রান রেটের প্রশ্ন। এই মুহূর্তে যেহেতু পঞ্জাবের নেট রান রেট ভালো তাই তাদের কোয়ালিফাই করার সম্ভাবনা বেশি থাকবে।

অন্যদিকে ইতিমধ্যেই ১৪ পয়েন্টে আছে রয়াল চ্যালেঞ্জার্স ও দিল্লি ক্যাপিটালস। সানরাইজার্সের আগামী দুই ম্যাচ আরসিবি ও এমআই-এর সঙ্গে। ওই দুটি ম্যাচ জিতলে সানরাইজার্সও ১৪ পয়েন্টে চলে যেতে পারে। আরসিবির আরেকটি ম্যাচ বাকি আছে দিল্লির সঙ্গে। সেদিন যে জিতবে সে কোয়ালিফাই করে যাবে। দিল্লির আরেকটি ম্যাচ আছে মুম্বইয়ের সঙ্গে।

দিল্লি যদি দুটি ম্যাচই হারে তাহলে তারা ১৪ পয়েন্টে থেকে যাবে। আরসিবির ক্ষেত্রেও সেটা প্রযোজ্য। তবে এই দুই দলের ম্যাচে যে জিতবে তার মুম্বইয়ের সঙ্গে প্লেঅফের টিকিট পাকা। প্রথম দুইয়ে থাকবে এই দুই দলের মধ্যে একটি। বাকিদের ক্ষেত্রে খুব সম্ভবত হবে নেট রান রেটের খেলা। আর মাত্র ছটি ম্যাচ বাকি, এখনও প্লে-অফের আশা আছে ছটি টিমের।

আরও পড়ুন: কোজাগরীর আরাধনায় টলিপাড়ার তারকারা, দেখুন ছবি ও ভিডিও …

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest