দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর মিলল ছাড়পত্র, বিরাটের সঙ্গে ইংল্যান্ড যাচ্ছেন অনুষ্কাও

বিরাটরা যেহেতু দীর্ঘ চারমাসের জন্য ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন, তাই তাঁদের পরিবারের সদস্যদেরও সঙ্গে পাঠানোর কথা ভাবছিল বোর্ড। সেইমতো বিসিসিআই (BCCI) এবং ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড ব্রিটেন সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করছিল। কয়েক সপ্তাহের টানাপোড়েনের পর ছাড়পত্র মিলেছে।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস। লম্বা ইংল্যান্ড সফরের জন্য পুরুষ এবং মহিলা- দু’ দলেরই ক্রিকেটার, কোচ, সাপোর্ট স্টাফেরা, তাঁদের পরিবাররকে সঙ্গে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি পেলেন। ব্রিটিশ সরকারের তরফে শেষ পর্যন্ত ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।বৃহস্পতিবার বিরাট কোহলির সঙ্গে ইংল্যান্ড উড়ে যাচ্ছেন অনুষ্কা শর্মাও।

বিরাট কোহলিরা প্রায় চার মাস ইংল্যান্ডে থাকবেন। প্রথমে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলবেন। এর পরে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবেন তাঁরা। শোনা গিয়েছে, বিসিসিআই-এর যে চাটার্ড ফ্লাইটে বিরাট কোহলি, মিতালি রাজরা লন্ডনে উড়ে যাবেন, সেই ফ্লাইটেই একই সঙ্গে তাঁদের পরিবারের লোকজনও যাবেন।

আরও পড়ুন : রামদেবের মন্তব্যের তুমুল বিরোধিতা, আজ ‘Black Day’ পালন চিকিৎসকদের

বিরাট এবং মিতালিরা লন্ডন থেকে প্রথমে সোজা সাউদাম্পটনে যাবেন। সেখানে কোয়ারেন্টাই পর্ব কাটানোর পর, মিতালিরা ব্রিস্টলে চলে যাবেন। সেখানে তাঁদের ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একটি টেস্ট ম্যাচ খেলার কথা। তবে সাউদাম্পটনে কত দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে, সেই প্রসঙ্গে এখনও কিছু জানানো হয়নি। আর বিরাট কোহলিদের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল সাউদাম্পটনেই রয়েছে।

ইংল্যান্ড সফরে যাওয়ার আগে দুই দলকেই মুম্বইয়ের এক হোটেল কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হয়েছে। কোয়ারেন্টাই পর্ব চলছে বলে, মাঠে নেমে প্রস্তুতির কোনও সুযোগ নেই। তাই দু’দলই আপাতত হোটেলের জিমেই গা ঘামাচ্ছেন। ২ জুন বিসিসিআই-এর চাটার্ড ফ্লাইটে ইংল্যান্ড সফরের জন্য উড়ে যাবেন বিরাট-মিতালিরা। ৩ জুন তাঁরা লন্ডনে পৌঁছবেন।

ইংল্যান্ডের নিয়ম অনুযায়ী এই মুহূর্তে শুধুমাত্র প্রথম সারির বিদেশি ক্রীড়াবিদরাই অনুমতি সাপেক্ষ সেদেশে প্রবেশ করতে পারে। তাঁদের পরিবারের সদস্যদের প্রবেশের অনুমতি নেই। কিন্তু বিরাটরা যেহেতু দীর্ঘ চারমাসের জন্য ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন, তাই তাঁদের পরিবারের সদস্যদেরও সঙ্গে পাঠানোর কথা ভাবছিল বোর্ড। সেইমতো বিসিসিআই (BCCI) এবং ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড ব্রিটেন সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করছিল। কয়েক সপ্তাহের টানাপোড়েনের পর ছাড়পত্র মিলেছে।

পুরুষ ক্রিকেটারদের পাশাপাশি মহিলা ক্রিকেটাররাও নিজেদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে রাখতে পারবেন। প্রসঙ্গত, মহিলা দলও পুরুষ দলের সঙ্গেই ৩ জুন লন্ডনে পৌঁছাবে। আগামী ১৬ জুন থেকে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলবেন হরমনপ্রীতরা। লন্ডন থেকে ব্রিস্টলে গিয়ে মহিলা দল এবং তাঁদের পরিবারের সদস্যদের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

আরও পড়ুন : Dev: দেবের হাতে কোভিড হাসপাতালের উদ্বোধন ডেবরায়

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest