বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের জেরে যুবির বিরুদ্ধে FIR,চাপে পড়ে ক্ষমা চাইলেন যুবরাজ

ওয়েব ডেস্ক: শেষ পর্যন্ত চাপে পড়ে ক্ষমা চাইলেন যুবরাজ সিং। তিনি কোনও বৈষম্যে বিশ্বাস করেন না বলে টুইট করে জানালেন তারকা অলরাউন্ডার। যজুবেন্দ্র চহলকে বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের জেরে বিপাকে পড়ে যান যুবি।

ঘটনা অবশ্য সেই এপ্রিল মাসের। সেই সময়, রোহিত শর্মার সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসেছিলেন যুবি। সেখানেই চাহালের টিকটক ভিডিওর প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে যুবি জাতি বিদ্বেষী মন্তব্য করে বসেন। বিষয়টির গুরুত্ব না বুঝেই। সেই সময়ে বিষয়টি নজর এড়িয়ে গেলেও সেই ভিডিওর বিতর্কিত ক্লিপটি কিছুদিন আগেই ফের একবার ভাইরাল হয়। এতেই চটেছেন সমর্থকরা।

সেই ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, রোহিত শর্মা হাসতে হাসতে চাহালকে লেগ পুল করলেও, যুবরাজ চাহালকে ‘ভাঙ্গি’ (জাতি বিদ্বেষ মন্তব্য) বলেন৷তারপরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আওয়াজ উঠে গিয়েছে, যুবরাজ ক্ষমা চাও! অনেকের দাবি, কোনও ব্যক্তিকে নিয়ে মশকরা করতে হলে তার জাতপাত তোলার প্রয়োজন নেই। অন্যজন বলছেন, যুবি অনেকেরই আইকন। তাঁর মুখে এমন কথা শোভা পায় না। আর এই জন্যই ওঠে ক্ষমা চাওয়ার দাবি। এরপরেই নেটিজেনদের দাবি চাহলের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে যুবরাজ সিংকে। শুরু হয়ে, ‘যুবরাজ সিং মাফি মাঙ্গো’ ক্যাম্পেনও।

আরও পড়ুন: লা লিগা শুরুর আগে দুঃসংবাদ, চোট পেয়েছেন মেসি, প্রত্যাবর্তনের ম্যাচ নিয়ে শঙ্কা

প্রাক্তন তারকা অলরাউন্ডারের বিরুদ্ধে পুলিসে অভিযোগ দায়ের করেন দলিত অধিকার কর্মী এবং আইনজীবী রজত কলসন। যুবরাজ দলিত ভাবাবেগে আঘাত করেছেন বলে দাবি তাঁর। শেষপর্যন্ত টুইট করে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন ভারতের ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক। যুবরাজের সাফাই, তাঁর মন্তব্যে কারোর ভাবাবেগ আঘাত লেগে থাকলে তিনি দুঃখিত।

আরও পড়ুন: রোনাল্ডোর ফিটনেসে দেখে হতবাক জুভেন্টাসের চিকিৎসকরাও

Gmail