রেড জোনকে তিন ভাগে ভেঙে দোকান খোলার সিদ্ধান্ত, জানালেন মমতা

কলকাতা: বান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে তৃতীয় দফার লকডাউনের মধ্যেই কিছু ছাড়ের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি এদিন জানিয়েছেন, এখনও অনেকদিন করোনাকে নিয়ে চলতে হবে আমাদের। আরও দু-তিন মাস সময় লাগতে পারে। সেজন্য একটু একটু করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে হবে। তবে এখনই কনটেনমেন্ট জোনে কোন বিধিনিষেধ শিথিল হবে না। এর বাইরে সব জোনেই স্ট্যান্ড-অ্যালোন বা একক ভাবে থাকা সব রকমের দোকান খোলা যাবে। তবে জেলার পুলিশ ও প্রশাসন ঠিক করে দেবে কোথায় কোন দোকান খোলা যাবে বা যাবে না সেটা।

এদিন মমতা বলেন, আমরা আগেই শপিং মল ও মার্কেট কমপ্লেক্সের বাইরে দোকানপত্তর খুলে দিতে বলেছি। কনটেনমেন্ট জোনে দোকান খোলা যায় কি না তা পুলিশ দেখবে। পুলিশকে ১৫ তারিখের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। 

আরও পড়ুন: করোনা সংকটের মধ্যে স্বাস্থ্য সচিব বদলি রাজ্যের, নেপথ্যে কি সেই চিঠি ?

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, রেড জোনকে তিন ভাগে ভাগ করবে পুলিশ। রেড জোন ‘এ’-তে কড়া ভাবে বলবৎ থাকবে লকডাউন। রেড জোন ‘বি’-তে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের নিয়ম মেনে দোকান খোলার অনুমতি মিলবে। তবে নিয়ম না মানলে আইনি ব্যবস্থার মুখে পড়তে হবে। রেড জোন ‘সি’ হল কনটেনমেন্ট জোনের বাইরের রেড জোন। সেখানে কিছু কিছু খোলা থাকবে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সাবধানতা বজায় রেখে ধীরে ধীরে অর্থনীতিকে সচল করার পক্ষে রাজ্য সরকার। সেজন্য স্বল্পমেয়াদি, মধ্য মেয়াদি ও দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা করছে রাজ্য সরকার। 

মমতা জানিয়েছেন, গ্রিন জোন জেলায় বাস চলবে। তবে কনটেনমেন্ট জোনে বাস চালানো ঠিক হবে কি না সেজন্য পরামর্শ চেয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুন: আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড় আমফান!‌ শক্তি বাড়িয়ে ধেয়ে আসছে পশ্চিমবঙ্গের দিকে

Gmail 1