আজও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা! জেনে নিন এই আবহাওয়া চলবে কত দিন?

এই বৃষ্টির কারণে কলকাতাও অনেকটাই লাভবান হয়েছে। এমনিতে গোটা মে মাসে কলকাতায় ১৩৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হওয়ার কথা।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বুধবারও দিনভর কলকাতা (Kolkata) -সহ দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) জেলা গুলোতে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এমনই পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আবহাওয়াবিদদের কথায়, বিশেষ করে উপকূলের জেলা গুলোতে বিক্ষিপ্ত ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। একটা নিম্নচাপ অক্ষরেখা অবস্থিত আছে পশ্চিম রাজস্থান থেকে অসাম পর্যন্ত। উত্তর প্রদেশ, বিহার হয়ে পশ্চিমবঙ্গের ওপর দিয়ে পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে গেছে এই অক্ষরেখা।

তাছাড়াও রয়েছে পশ্চিমের হাওয়ার প্রভাব। ফলে বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকছে বাংলায়। আর এই কারণেই দক্ষিণবঙ্গের উপকূলের জেলা ও বাংলাদেশ লাগোয়া জেলাগুলোতে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শুধুমাত্র পশ্চিমের জেলাগুলোতে বৃষ্টি হবে না। আগামী ২৪ ঘণ্টা এই ঝড়-বৃষ্টি বজায় থাকবে। ১৩ তারিখ থেকে বৃষ্টির পরিমাণ কমবে। ১৪ তারিখ থেকে আকাশ পরিষ্কার হয়ে যাবে। এই বৃষ্টির জন্য তাপমাত্রা অনেকটা কমে গিয়েছে।

খাতায় কলমে পশ্চিমবঙ্গে বর্ষা ঢোকার কথা ৮ জুন। কলকাতায় বর্ষা শুরু হয় ১১ জুন নাগাদ। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে যে রকম আবহাওয়া চলছে তা বর্ষার সঙ্গেই তুলনীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় একশো মিলিমিটারের ওপর বৃষ্টি রেকর্ড করা হল শহরে।

আরও পড়ুন: অর্থে অমিত, শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য, পরিবহণে ফিরহাদ, উত্তরবঙ্গে মমতা…দেখুন কে কোন দায়িত্বে

মঙ্গলবার দুপুরের পর ঘণ্টা দুয়েকের বৃষ্টিতে ভেসেছে গোটা কলকাতা। আবহাওয়া দফতরের রেকর্ড বলছে এই সময়ে শহরে ১০২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। কলকাতার উত্তরের দমদমে বৃষ্টি হয়েছে ১১১ মিলিমিটার। অন্য দিকে সল্টলেকে বৃষ্টির পরিমাণ সব থেকে বেশি, ১১৬ মিলিমিটার।

শুধু কলকাতা বা তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলই নয়, মঙ্গলবার দক্ষিণবঙ্গের আরও কিছু কিছু জায়গাতেই ভারী বৃষ্টি হয়েছে। ব্যারাকপুরে ৯৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। দক্ষিণের ক্যানিং ৬৫ মিলিমিটার বৃষ্টি পেয়েছে। অন্য দিকে বহরমপুরে ৪৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও ভালো বৃষ্টি হয়েছে খড়গপুর (৩৫ মিমি), মগরা (৩২ মিমি), কৃষ্ণনগর (৩১.৪ মিমি), পুরুলিয়া (৩০ মিমি) এবং দিঘায় (২০ মিমি)।

এই বৃষ্টির কারণে কলকাতাও অনেকটাই লাভবান হয়েছে। এমনিতে গোটা মে মাসে কলকাতায় ১৩৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হওয়ার কথা। কিন্তু এ বার মে’র প্রথম ১১ দিনেই ১৬০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়ে গেল। এর ফলে গত বছর নভেম্বর থেকে বৃষ্টি না পাওয়ার ফলে শহরের মাটির তলার জলস্তর যেটা কমতে শুরু করেছিল, সেটা ফের বেড়েছে।

আরও পড়ুন: ভরদুপুরে নামল আঁধার তুমুল বৃষ্টি, ৩ জেলায় বাজ পড়ে মৃত ৫

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest