বারবার অনুরোধ করে ছুটি নিলেন মমতা, আপাতত কিছুদিনের জন্য বাহন হুইলচেয়ার, পরতে হবে বিশেষ চটি

হাসপাতাল সূত্র জানাচ্ছে, বাড়ি ফিরলেও এখনই সক্রিয় ভাবে রাজনৈতিক কার্যকলাপ শুরু করতে পারবেন না তিনি।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ এসএসকেএম হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান তিনি। বের হওয়ার সময় দেখা গেল হুইলচেয়ারে বসে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার আগে এসএসকেএম হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, তাঁর গোড়ালির ব্যথা অনেকটাই কমেছে। শুক্রবার নতুন করে তাঁর পায়ে প্লাস্টার করা হয়েছে। চিকিৎসকরা তাঁকে ৪৮ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু হাসপাতালে থাকতে চাননি মমতা। বারবার তিনি অনুরোধ করায় ছুটি দেওয়া হয়েছে তাঁকে। যদিও ৭ দিন পরে ফের তাঁকে চেক আপের জন্য আসতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সব নিয়ম মেনেই চলাফেরা করবেন তিনি।

জানা গিয়েছে, প্লাস্টার থাকা অবস্থায় চটি নয়, বরং বিশেষ জুতো পরে হাঁটাচলা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই জুতো পরেই হাসপাতাল থেকে বের হন তিনি।

আরও পড়ুন: বিজেপিতে যোগ দেওয়ার তিন দিন পরই ‘ওয়াই প্লাস’ নিরাপত্তা পেলেন ‘জাত গোখরো’

সেইমতো শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টার পর হুইলচেয়ারে করে উডবার্ন ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে আসেন মমতা। সঙ্গে ছিলেন ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিমরা। মমতাকে ধরে গাড়ির সামনের আসনে বসানো হয়। পিছনের আসনে বসেন অভিষেক। তারপর মমতার কনভয় কালীঘাটের দিকে রওনা দেয়। নন্দীগ্রামের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার মমতার কনভয়ের নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়। কিছুক্ষণ পর বাড়িতে পৌঁছে যান তিনি। গাড়িতে মমতাকে রীতিমতো অবসন্ন লাগছিল। মাথায় হাত দিয়ে বসেছিলেন।

শুক্রবার এসএসকেএমের মেডিকেল বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ছয় সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড মমতার শারীরিক অবস্থা খতিয়ে দেখেছে। তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। যে চোট আছে, তা কিছুটা ভালো হয়েছে মনে করা হচ্ছে। ফোলাও কমেছে। কম আছে গোড়ালির ব্যথাও। তাঁর প্লাস্টার কেটে নয়া প্লাস্টার করা হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্র জানাচ্ছে, বাড়ি ফিরলেও এখনই সক্রিয় ভাবে রাজনৈতিক কার্যকলাপ শুরু করতে পারবেন না তিনি। আগামী কয়েক দিন বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা করাতে হবে তাঁকে। তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, সে ক্ষেত্রে শনিবার নয় সোমবার থেকে রাজনৈতিক কর্মসূচি শুরু করতে পারেন মমতা।

আরও পড়ুন: দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে হলদিয়ায় মনোনয়ন জমা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী, ভোটার হলেন নন্দীগ্রামের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest