প্রতিশ্রুতি মত বাংলার কৃষকদের ১৮ হাজার টাকা দিন, মোদীকে চিঠি মমতার

রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে ভোট প্রচারে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বার বার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বিজেপি ক্ষমতায় এলে প্রত্যেক কৃষককে পিএম কিষাণ প্রকল্পের আওতায় ১৮ হাজার করে টাকা দেওয়া হবে। রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে ভোট প্রচারে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বার বার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেই টাকা কৃষকদের দ্রুত দেওয়ার আবেদন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন মমতা।

প্রধানমন্ত্রীকে চিঠিতে মমতা লিখেছেন, ‘রাজ্যে বার বার এসে আপনি বলেছেন, প্রত্যেক কৃষককে ১৮ হাজার করে টাকা ভাতা দেওয়া হবে। কিন্তু এখনও রাজ্যের কোনও কৃষক সেই ভাতা পাননি। তাই আমি অনুরোধ করছি যত দ্রুত সম্ভব পিএম কিষাণ প্রকল্পের আওতায় থাকা কৃষকদের টাকা দেওয়া হোক ও ২১ লক্ষ ৭৯ হাজার কৃষকের তথ্য প্রকাশ করা হোক’।

চিঠিতে মমতা প্রধানমন্ত্রীকে আরও জানিয়েছেন, গত বছর ৩১ ডিসেম্বর তিনি কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন। কিন্তু সেই চিঠির কোনও নির্দিষ্ট জবাব তিনি পাননি। গত বছর ৬ নভেম্বর কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রীর একটি চিঠি অনুযায়ী, রাজ্যের ২১ লক্ষ ৭৯ হাজার কৃষক পিএম কিষাণ প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করেছেন। তার মধ্যে ১৪ লক্ষ ৯১ হাজার কৃষকের তথ্য পোর্টালে নথিভুক্ত করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ৯ লক্ষ ৮৪ হাজার কৃষক ভাতা পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু এখনও তা পাওয়া যায়নি।

রাজ্য সরকারের কৃষক বন্ধু প্রকল্পে কৃষকরা কী সুবিধা পেয়েছেন সে কথাও জানিয়েছেন মমতা। তিনি বলেন, ‘‘এই প্রকল্পের আওতায় ৫৭ লক্ষ ৬৭ হাজার কৃষকের দেওয়ার জন্য ১ হাজার ৪৯৮ কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে। কৃষকদের মৃত্যুর পরে ভাতা হিসেবে ২৪২ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।’’ এ ছাড়া ৬০ বছরের নীচে কোনও কৃষকের মৃত্যু হলে ২ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী কিসান নিধি প্রকল্প নিয়ে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে চাপানউতোর চলেছে কেন্দ্র-রাজ্যে। বিজেপির পক্ষ থেকে বারংবার অভিযোগ তোলা হয়েছে, রাজ্য সরকার কৃষকদের তথ্য যাচাই করে কেন্দ্রকে দিচ্ছে না। সেই কারণেই কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারছে না। যদিও সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনের আগেই কেন্দ্রের কিসান নিধি প্রকল্প চালু করতে সায় দিয়েছিলেন মমতা। যদিও নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাওয়ায় পর সেটার কাজ আর এগোয়নি।ক্ষমতায় এসেই ফের বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকে মনে করিয়ে দিলেন মমতা।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest