BREAKING: সামনের বুধবার থেকে দৌড়াবে লোকাল ট্রেন,নবান্নে বৈঠকের পর ইঙ্গিত!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

সব জল্পনার অবসান। আগামী সপ্তাহ থেকে বাংলায় চালু হতে চলছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। সূত্রের খবর, সামনের বুধবার থেকেই লোকাল ট্রেন চালু হতে পারে।প্রথম দিন হাওড়া ও শিয়ালদহ মিলিয়ে ৩৬২টি ট্রেন চলবে। তারপর সুরক্ষা ব্যবস্থা দেখে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে। বিধি কার্যকর হওয়া ও সুরক্ষা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে আগামী সোমবার ফের নবান্নে বৈঠকে বসবেন রেল ও রাজ্য সরকারের আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন : যোগীর সিএএ মন্তব্যে বেজায় চটেছেন নীতীশ, বিহার ভোটের মাঝেই শরিকি সঙ্ঘাত

এদিনের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে গ্যালপিং ট্রেন চালানো হবে। সব স্টেশনে তা দাঁড়াবে না। বৃহস্পতিবারের বৈঠকে এমনই স্থির হয়েছে বলে রেল সূত্রে খবর। রেলের তরফে প্রাথমিক ভাবে বলা হয়েছে,নতুন কোনও টাইমটেবিল হবে না। পুরনো সময় অনুযায়ী ট্রেন চলবে।

রেলের তরফে বলা হচ্ছে ৩৬২টি ট্রেনের মধ্যে হাওড়া ডিভিশনে চলবে ১০১টি ট্রেন। শিয়ালদহ ডিভিশনে ২২৮টি ট্রেন চলবে। বাকি ৩৩টি ট্রেন চলবে খড়গপুর ডিভিশনে।গত কয়েক দিন ধরেই দফায় দফায় বৈঠক হচ্ছে রেল ও রাজ্য সরকারের। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বলেন, “রেলকে আমরা আগেই বলেছি লোকাল ট্রেন বেশি চালাবেন। তাতে ভিড় কম হবে। তবে হ্যাঁ কোভিড প্রটোকল মেনেই চালাতে হবে।”

আগের দিন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ট্রেন চললেও যাত্রীসংখ্যা অর্ধেক করে দেওয়া হবে। এখন একটা ট্রেনে ১২০০ জন যাত্রী বসে যেতে পারেন। কোভিড বিধি মেনে এই সংখ্যাই ৬০০ জনে নামিয়ে আনা হবে। ট্রেনে উঠলে মাস্ক, স্যানিটাইজার বাধ্যতামূলক করা হবে।যখন ১০০ শতাংশ ট্রেন চলত এবং ট্রেনযাত্রীরা তাতে চাপতেন তখনই অফিসটাইমে বাদুড় ঝোলা অবস্থা হতো। ট্রেনের সংখ্যা কমালে বিপত্তি আরও বাড়তে পারে।

আরও পড়ুন : অবসরপ্রাপ্ত সেনা অফিসারদের পেনশন কাটছাঁটের পরিকল্পনা করছে মোদী সরকার !

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest